বিকাল ৪:৫১ শনিবার ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

নয়াপল্টনে খালেদার উপদেষ্টা ওয়াহিদুলের জানাজা

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 28, 2018 , 8:32 am
ক্যাটাগরি : রাজনীতি
পোস্টটি শেয়ার করুন

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক হুইপ সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের দ্বিতীয় জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে তাকে দলের নেতাকর্মীরা শেষ বিদায় জানান।

রবিবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর সেন্ট্রাল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন বিএনপির এই নেতা। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

দলীয় কার্যালয়ের সামনে জানাজা অংশ নেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধূরী, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবদীন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মশিউর রহমান, মামুন আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, কেন্দ্রীয় নেতা সেরাজুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম সেলিম, হাবিবুল ইসলাম হাবিব, এবিএম মোশাররফ হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, মীর নেওয়াজ আলী, মাহবুবুল হক নান্নু, আমিরুজ্জামান শিমুল, হারুনুর রশীদ, আবুল হোসেন, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আবদুল মালেকসহ নেতা-কর্মীরা অংশ নেন। জানাজায় ইমামতি করেন ওলামা দলের সেক্রেটারি শাহ নেছারুল হক।

জানাজাপূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা এমন একজন নেতাকে হারালাম যা পূরণীয় নয়। তিনি দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ একজন নেতা ছিলেন।

জানাজার নামাজ শেষে দলীয় পতাকা মোড়ানো কফিনে দলের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্বা জানান বিএনপি মহাসচিব।

বেলা ১১টায় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় সাবেক হুইপ ওয়াহিদুল আলমের জানাজা হয়।

পরিবারের সদস্যরা জানান, দুপুরে বেসরকারি হেলিকপ্টারে করে মরহুমের কফিন নিয়ে যাওয়া হবে চট্টগ্রামে। বাদ আসর চট্টগ্রামের জমিয়তুল ফালাহ মসজিদের নামাজে জানাজা হবে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় হাটহাজারী কলেজ মাঠে এবং বাদ জোহর লালিয়ার হাট মাদ্রাসা মাঠে জানাজা শেষে ওয়াহিদুল আলমকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

তার দুই মেয়ে ব্যারিস্টার শাকিলা ফারজানা ও ব্যারিস্টার আকলিমা ফারজানা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী।

সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। বিএনপি প্রতিষ্ঠার পর তিনি এই দলে যোগ দেন। তিনি হাটহাজারী উপজেলার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন।

১৯৯১ সাল থেকে তিনি তিন দফা জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য ছিলেন। ২০০১ সালে ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ।

২০০৮-০৯ মেয়াদে চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করা ওয়াহিদুল আলম দলের গত কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদকও ছিলেন।