সকাল ১০:৪০ শুক্রবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

আলোচনায় বসো, নয়তো পরমাণু যুদ্ধে নামো

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 24, 2018 , 8:01 am
ক্যাটাগরি : আর্ন্তজাতিক
পোস্টটি শেয়ার করুন

উত্তর কোরিয়ার এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সাম্প্রতিক বক্তব্যকে ‘আহাম্মকি’ বলে উড়িয়ে দেয়ায় যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার নেতাদের মধ্যে প্রস্তাবিত বৈঠক আরও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন জানায়, উত্তর কোরিয়ার উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী চো সন হুই বৃহস্পতিবার বলেছেন পিওইয়ং আলোচনার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে ‘অনুনয়’ করবে না, এবং কূটনীতিক পদক্ষেপ ব্যর্থ হলে পরমাণু মহড়া চালাবে।

চো সন-হুই গত দশকে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যেকার কয়েকটি কূটনৈতিক আদানপ্রদানের সাথে যুক্ত ছিলেন।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কেসিএনএ-তে প্রকাশিত একটি কলামে তিনি বলেন, পেন্স সম্প্রতি মিডিয়ায় ‘লাগামহীন ও উদ্ধত মন্তব্য দিয়েছেন। ‘উত্তর কোরিয়ার পরিণতি লিবিয়ার মতো হতে পারে’ এটাও তার এমনই একটি মন্তব্য।

পেন্সকে একজন ‘রাজনৈতিক নির্বোধ’ বলে অভিহিত করে হুই বলেন, উত্তর কোরিয়া একটি পরমাণু অস্ত্রধারী দেশ। আর লিবিয়া কেবলমাত্র কয়েকটি যন্ত্র স্থাপন করে সেগুলো নিয়ে নাড়াচাড়া করছিল।

‘যুক্তরাষ্ট্রের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থাকা একজন ব্যক্তি হিসেবে, আমি যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্টের মুখ থেকে এমন আহাম্মকি বক্তব্য বের হওয়ায় বিস্মিত,’ বলেন তিনি।

তার দেশ আলোচনার জন্য ‘অনুনয় করবে না’ বলে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আমাদের সাথে মিটিং রুমে আলোচনায় বসবে, নাকি পরমাণু অস্ত্রকে পরমাণু অস্ত্র দিয়ে মোকাবেলা করবে তা পুরোটাই নির্ভর করবে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত ও আচরণের উপর।’

আগামী জুন ১২ তারিখে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু, সাম্প্রতিক দিনগুলোতে দুই পক্ষই জানায় ওই বৈঠক আরও পরে অথবা একেবারেই বাতিল হয়ে যেতে পারে।

পিওংইয়ং জানিয়েছে তারা একতরফাভাবে সব পরমাণু অস্ত্র ধ্বংস করবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মঙ্গলবার বলেছিলেন আলোচনা করতে চাইলে উত্তর কোরিয়াকে শর্ত মানতে হবে এবং তারা সেটি করবে কিনা সেই সিদ্ধান্ত তাদেরই নিতে হবে।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বল্টন উত্তর কোরিয়ার অবস্থা পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের যাচাইযোগ্য ‘লিবিয়া মডেলের’ মতো হতে পারে বলায় তার ওপরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে দেশটি।

এরপর উত্তর কোরিয়ার উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ট্রাম্প-কিম বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার হুমকি দেন।