রাত ১:৫১ শুক্রবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

পুঁজিবাজারে মন্দা কাটছে না

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 23, 2018 , 2:23 pm
ক্যাটাগরি : অর্থনীতি
পোস্টটি শেয়ার করুন

দেশের পুঁজিবাজারে নজিরবিহীন মন্দাভাব চলছে। টাকা ১৩ কার্যদিবস পতনের পর এক দিন বাড়লেও পরের দুই দিন আবার পড়ল সূচক। এ নিয়ে ১৬ কার্যদিবসের মধ্যে সূচকের পতন হলো ১৫ দিনই।

বুধবার সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ৩০ পয়েন্ট। আর চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে প্রধান সূচক কমেছে ৪৯ পয়েন্ট।

দুই বাজারেই লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। তবে টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে।

গত ২৬ এপ্রিল থেকেই পুঁজিবাজারে মন্দাভাব দেখা দেয়। টানা ১৩ কার্যদিবস সূচকের পতনের পর গত সোমবার একদিন ২২ পয়েন্ট বেড়েছিল। তবে পরের দিন মঙ্গলবারই ২১ পয়েন্ট কমে যায় সূচক।

পুঁজিবাজারে এর আগে এমন টানা পতন কখনও হয়নি। এমনকি ২০১০ সালেও একসঙ্গে টানা পতন হয়েছিল ১০ দিন। এরপর একদিন সূচক বাড়ার পর আবার কমেছিল চার দিন। এই পতনের কারণ জানার চেষ্টা করছেন বিনিয়োগকারীরা। বেশিরভাগ ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীই লোকসানে আছেন। তার পতন অব্যাহত থাকায় নতুন করে বিনিয়োগের সাহসও পাচ্ছেন না তারা।

আজ লেনদেন শেষে ডিএসইতে প্রধান সূচকের অবস্থান দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ৩৬১ পয়েন্টে। এটি গত এক বছরের মধ্যে সূচকের সর্বনি¤œ অবস্থান।

ডিএসইএক্স সূচকের পাশাপাশি শরিয়াহ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ২৫১ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক দুই পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৯৮৮ পয়েন্টে।

দিনভর লেনদেন হওয়া ৩২৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিটের মধ্যে দর বেড়েছে ৬০টির, কমেছে ২৩০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির।

লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলো: ব্র্যাক ব্যাংক, ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং স্টেশন, বাংলাদেশ স্টিলরি-রোলিং মিলস, কুইনসাউথ টেক্সটাইল, লিগাসি ফুটওয়্যার, ইউনাইটেড পাওয়ার, বেক্সিমকো, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, গ্রামীণ ফোন এবং ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড।

আজ লেনদেন হয়েছে ৪৮৮ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট, যা আগের দিনের চেয়ে ৫০ কোটি ১৯ লাখ টাকা বেশি। মঙ্গলবার ডিএসইতে ৪৩৮ কোটি ৪১ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছিল।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ১৮ কোটি ৫৪ লাখটাকার লেনদেন হয়েছে। সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই অবস্থান করছে ১৬ হাজার ৫৯১ পয়েন্টে।

মোট লেনদেন হয়েছে ২১৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিটের। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৭টির, কমেছে ১৩৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টির শেয়ার দর।