সকাল ৯:০৯ সোমবার ২৬শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। | কুমিল্লা লালমাইয়ে যাত্রীবাহী বাসের চাপায় সিএনজি অটোরিকশার ৫ যাত্রী নিহত।আহত-৩ | সিলেটের প্রতীক কিনব্রিজ রক্ষায় উদ্যোগ গ্রহন | কুমিল্লা সদরে র‍্যাব-১১ অভিযানে ৫ হাজার ৬ শত পিছ ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক | কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামের চিওড়ায় গরু বোঝাই ট্রাক উল্টে তিন গরু ব্যবসায়ী নিহত। | জিজ্ঞাসাবাদের পর মিন্নি গ্রেফতার | বিশ্বকাপের মঞ্চে ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড, ইংলিশদের হাতে উঠবে কি কাপ..? | বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে সুরমার পানি | মিরপুর বেরিবাধে চোর আটক, স্থানীয় সাংসদের আত্মীয় পরিচয়ে বাচার চেষ্টা |

২ লাখ টাকা চাঁদা না দেয়ায় মিস্ত্রিকে খুন করলেন ছাত্রলীগ নেতা

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : মার্চ ১৪, ২০১৯ , ৩:৪১ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : অপরাধ ও দুর্নীতি
পোস্টটি শেয়ার করুন

যশোরে চাঁদার দাবিতে সাজু চৌধুরী (২৫) নামে এক ওয়েল্ডিং মিস্ত্রিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছালছাবিল ইসলাম জিসান ও তার সহযোগীরা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে পরিবার ও পুলিশ জানিয়েছে।

বুধবার রাত ১১টার দিকে শহরের বিমান অফিস মোড়ে সাজু চৌধুরীকে মারপিট করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। নিহত সাজু চৌধুরী শহরের পুলিশ লাইন টালিখোলা এলাকার স্বপন চৌধুরীর ছেলে।

যশোর কোতোয়ালি থানা পুলিশের ওসি অপূর্ব হাসান বলেন, বুধবার রাতে শহরের বিমান অফিসের সামনে সাজু চৌধুরীর মাথায় আঘাত করেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জিসান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সাজু চৌধুরীর মৃত্যু হয়েছে।

সাজুর বড় ভাই রাজু চৌধুরী বলেন, বুধবার রাতে সাজু ওষুধ আনার জন্য চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে (বিমান অফিস মোড়) যায়। এ সময় তার ওপর হামলা করে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জিসান। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

নিহতের বাবা স্বপন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ লাইন টালিখোলায় ভাই ভাই নামে সাজুর একটি ওয়েল্ডিং কারখানা আছে। তার দুই ছেলে ওই কারখানাটি চালায়। যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছালছাবিল আহমেদ জিসান সাজুর কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায় বুধবার রাতে জিসানের নির্দেশে পাভেল, রাব্বি ও জনিসহ ৮-১০ জন ক্যাডার সাজুর ওপর হামলা করেন। পরে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে জানতে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছালছাবিল আহমেদ জিসানের মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।