সকাল ৭:১০ বুধবার ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

প্রথম আসরের সেরা যারা

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : March 2, 2019 , 2:28 pm
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট লিগের ফাইনাল ম্যাচে মুখোমুখি হবে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব এবং প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। এ দুই দলকে ফাইনালে তুলতে ব্যাটে-বলে অবদান রেখেছেন জিয়াউর রহমান, সালাউদ্দিন শাকিল, শহীদুল ইসলাম, ফরহাদ রেজা, সাঈফ হাসানরা।

এছাড়াও টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল পর্যন্ত ব্যাটে-বলে আলো ছড়িয়েছেন রুবেল মিয়া, শুভাগত হোম, আফিফ হোসেন, সোহরাওয়ার্দী শুভ, সাজ্জাদ হোসেনরা। ফাইনালের ডামাডোলের মাঝে চলুন ঘুরে আসা যাক দেশের ক্রিকেটে আয়োজিত প্রথম টি-টোয়েন্টি লিগ থেকে।

যেখানে উদীয়মান তারকা হিসেবে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন জুনায়েদ সিদ্দিকী। আলো ছড়িয়েছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল, মাশরাফি বিন মর্তুজা, আফতাব আহমেদরাও। দেখে নেয়া যাক ২০০৬ সালে হওয়া প্রথম টি-টোয়েন্টি লিগের সেরা পারফরমারদের তালিকা:

টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকা

১. জুনায়েদ সিদ্দিকী (মোহামেডান): ৭ ম্যাচে ১৯৩ রান, সর্বোচ্চ ১৩৪

২. ইমতিয়াজ তান্না (মোহামেডান): ৭ ম্যাচে ২৪৫ রান, সর্বোচ্চ ৮২

৩. আফতাব আহমেদ (মোহামেডান): ৭ ম্যাচে ২২১, সর্বোচ্চ ৬৬

৪. মেহরাব জুনিয়র (ওল্ড ডিওএইচএস): ৭ ম্যাচে ১৭৮ রান

৫. নাসিরউদ্দীন ফারুক (ভিক্টোরিয়া): ৬ ম্যাচে ১৬৯ রান

৬. হাসানুজ্জামান রোজেল (ভিক্টোরিয়া): ৬ ম্যাচে ১৬৮ রান

৭. নাদিফ চৌধুরী (ওল্ড ডিওএইচএস): ৭ ম্যাচে ১৬৮ রান

৮. মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (ভিক্টোরিয়া): ৬ ম্যাচে ১৬০ রান

৯. তামিম ইকবাল (ওল্ড ডিওএইচএস): ৭ ম্যাচে ১৩৯ রান

১০. মোহাম্মদ আশরাফুল (সোনারগাঁ ক্রিকেটার্স): ৫ ম্যাচে ১৩৯ রান

টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকা

১. মোহাম্মদ শরীফ (সোনারগাঁ ক্রিকেটার্স): ৫ ম্যাচে ১৩ উইকেট, সেরা বোলিং ১৬ রানে ৩ উইকেট

২. মাশরাফি বিন মর্তুজা (আবাহনী): ৬ ম্যাচে ১১ উইকেট, সেরা বোলিং ৫ রানে ৫ উইকেট

৩. সৈয়দ শাহনেওয়াজ কবির শুভ্র (ভিক্টোরিয়া): ৬ ম্যাচে ১১ উইকেট

৪. শাহাদাত হোসেন রাজিব (ওল্ড ডিওএইচএস): ৬ ম্যাচে ১০ উইকেট

৫. আব্দুর রাজ্জাক (ওল্ড ডিওএইচএস): ৭ ম্যাচে ১০ উইকেট, সেরা বোলিং ১২ রানে ৪ উইকেট

৬. তাপস বৈশ্য (মোহামেডান): ৭ ম্যাচে ৯ উইকেট, সেরা বোলিং ২৯ রানে ৫ উইকেট

৭. মোহাম্মদ রফিক (সোনারগাঁ ক্রিকেটার্স): ৫ ম্যাচে ৮ উইকেট

৮. শাহজাদা (আবাহনী): ৬ ম্যাচে ৮ উইকেট

৯. আরাফাত সানি (মোহামেডান): ৭ ম্যাচে ৮ উইকেট

১০. খালেদ মাহমুদ সুজন (ওল্ড ডিওএইচএস): ৭ ম্যাচে ৭ উইকেট