সকাল ৮:৩৯ বৃহস্পতিবার ২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

ছেলেটি ভালোবাসা দিবসকেই বেছে নেয় আত্মহত্যার জন্য

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : February 16, 2019 , 3:19 pm
ক্যাটাগরি : গনমাধ্যম
পোস্টটি শেয়ার করুন

কুমিল্লায় গলায় ফাঁস নিয়ে আওসাদ আলম ফয়সাল (২৫) নামে এক কলেজছাত্র আত্মহত্যা করেছেন। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে নগরীর বাগিচাগাঁও এলাকার বাড়ির শয়নকক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মৃত ফয়সাল কুমিল্লা নগরীর পূর্ব বাগিচাগাঁও এলাকার আলমগীর হোসেনের একমাত্র ছেলে। ফয়সাল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের স্নাতক (বিবিএস) পাস কোর্সের শেষবর্ষের ছাত্র ছিলেন।

নিহতের পরিবার জানায়, পড়ালেখার পাশাপাশি ফয়সাল শর্টফিল্ম নির্মাণ করতেন। দেড় বছর আগে পারিবারিকভাবে তার বিয়ে হয়। শ্বশুরবাড়ি টাঙ্গাইল হলেও কুমিল্লা নগরীর বাদুড়তলায় স্ত্রী নিয়ে থাকতেন ফয়সাল।

ছেলের আত্মহত্যার বিষয়ে বাবা আলমগীর হোসেন বলেন, একমাত্র সন্তান হওয়ায় সবার মধ্যমণি ছিল ফয়সাল। পরিবারের কারও সঙ্গেই তার কোনো ঝামেলা ছিল না। তবে, প্রচণ্ড অভিমানী ছিল। সারাক্ষণ বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিতো। কিন্তু ভালোবাসা দিবসকে আত্মহত্যার জন্য বেছে নেয় অভিমানী ফয়সাল। আমাদের সবাইকে ছেড়ে চলে যায় অভিমানী ছেলেটি।

বাবা আলমগীর হোসেন আরও বলেন, আমার ধারণা ফয়সাল তার বন্ধুদের সঙ্গে কোনো বিষয়ে বাগবিতণ্ডা করেছে। আর সে কারণে অভিমানে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে ফয়সাল। একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে আমরা অসহায়।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের তদন্ত কর্মকর্তা সালাহ উদ্দিন বলেন, ফয়সালের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয় তদন্ত করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।