বিকাল ৪:৫৯ মঙ্গলবার ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

জঙ্গি হামলায় ৪০ সেনা নিহত

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : February 14, 2019 , 3:14 pm
ক্যাটাগরি : আর্ন্তজাতিক
পোস্টটি শেয়ার করুন

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে সেনাবাহিনীর গাড়িবহরে জঙ্গি হামলায় ৪০ জন নিহত ও অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। নিহতদের সবাই ভারতের কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ বাহিনীর (সিআরপিএফ) সদস্য। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলয়ামায় শ্রীনগর-জম্মু জাতীয় সড়কের ওপর সিআরপিএফের সদস্যদের বহনকারী দুটি গাড়ি লক্ষ্য করে হামলা চালায় জঙ্গিরা। হামলার দায় স্বীকার করেছে জঈশ-ই-মহম্মদ। জঙ্গি হামলার পরই পুরো রাজ্যে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, বৃহস্পতিবারের এই হামলার ঘটনায় কাশ্মীর ভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জঈশ-ই-মহম্মদের আদিল মোহাম্মদ নামের এক হামলাকারীকে শনাক্ত করেছে পুলিশ। গত বছর তিনি জঈশ-ই-মহম্মদে যোগ দেন।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, বেলা সাড়ে তিনটা নাগাদ দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার অবন্তিপোরার লেথপোরা এলাকায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

জঙ্গি সংগঠন জঈশ-ই-মহম্মদের আদিল মোহাম্মদ নামের সন্দেহভাজন এক হামলাকারী বিস্ফোরকবোঝাই একটি গাড়ি চালিয়ে সিআরপিএফের একটি বাসে সজোরে ধাক্কা মারে। বিস্ফোরণের পর গাড়িটি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে ৪০ জওয়ান নিহত হন। আহত ব্যক্তিদের শ্রীনগরে সেনাবাহিনীর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওই বাসটিতে বাহিনীর ৫৪ জন সদস্য ছিলেন।

ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল এনডিটিভি বলছে, ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে উরি হামলার পর থেকে এটাই সবচেয়ে বড় হামলা। সেবার আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছিল জঙ্গিরা। সেবারের ওই হামলায় ১৭ সেনা নিহত হন।