রাত ৯:৫৪ শুক্রবার ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

বাংলা ইশারা ভাষা ইনস্টিটিউট হবে : সমাজকল্যাণ মন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : February 7, 2019 , 4:33 pm
ক্যাটাগরি : জাতীয়
পোস্টটি শেয়ার করুন

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেছেন, দেশে বর্তমানে ১ লাখ ৬৬ হাজার ৩৯৭ জন নিবন্ধিত বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী রয়েছে। এর মধ্যে ১ লাখ ১৮ হাজার ৯০৭ জন বাক প্রতিবন্ধী ও ৪৭ হাজার ৪৯০ জন শ্রবণ প্রতিবন্ধী। এই বিপুল সংখ্যক বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য দেশে মোট ৮টি বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় থাকলেও ঢাকায় বড় কোনো ইনস্টিটিউট নেই। কাজেই খুব শিগগিরই রাজধানীতে বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য একটি ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হবে, যেখানে তাদের প্রশিক্ষণের জন্য সকল সুযোগ-সুবিধা থাকবে।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে সমাজসেবা অধিদফতরে বাংলা ইশারা ভাষা দিবস-২০১৯ উদযাপন উপলক্ষে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

সমাজসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ নুরুল কবীরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জুয়েনা আজিজ প্রমুখ।

এর আগে দিবসটি উপলক্ষে আজ সকাল ১০টায় আগারগাঁওয়ে প্রবীন হিতৈষী সংঘ থেকে সমাজসেবা অধিদফতর পর্যন্ত প্রধান সড়কে বর্ণাঢ্য র্যালি বের করা হয়। সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জুয়েনা আজিজ র্যালিতে নেতৃত্ব দেন। র্যালি ও আলোচনা শেষে বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী শিশুদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।