বিকাল ৩:৫৮ রবিবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

ফের সংলাপ, তবে প্রসঙ্গটা কি?

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : January 14, 2019 , 11:25 am
ক্যাটাগরি : রাজনীতি
পোস্টটি শেয়ার করুন

গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু বলেন, আবারও সংলাপে আমন্ত্রণ জানানোর বিষয়ে আহ্বানের জন্য ওবায়দুল কাদের সাহেবকে ধন্যবাদ। তবে এই সংলাপের প্রসঙ্গটা কি? সংলাপে আলোচনার মূল বিষয়বস্তু কি হবে? তা এখনো আমাদের বিস্তারিত জানানো হয়নি, আমরা জানি না। এ বিষয়ে আমাদের জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট শরীকদলগুলোকে নিয়ে বসে তারপর সিদ্ধান্ত নেবেন। সংলাপে যাবেন কি যাবেন না?

তিনি বলেন, অনেকের ধারণা এ সংলাপ নির্বাচন বিষয়ে, সুশাসনের নিয়ে হতে পারে। আমরা অগ্রিম কোনো কথা বলতে চাইনা। তবে একাদশ যে নির্বাচন হয়েছে, এ নির্বাচনে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ তাদের অধিকার আদায় করতে পারেনি। এটা প্রত্যেকেই জানেন, নির্বাচনের আগের রাতেই ভোট সম্পন্ন হয়েছে। এরপর সারাদিন কি হয়েছে আপনারা সাংবাদিকরাসহ সারা বিশ্ব দেখেছে। কেমন ভোট হয়েছে এটা আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি, সিএনএনসহ অনেক মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

সম্প্রতি একটি বেসরকারি টেলিভিশন টকশোতে এমন মন্তব্য করেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু।

তিনি বলেন, যাই হোক এটা একটা অনাকাঙ্গিত ঘটনা ঘটেছে। আমাদের ১৪’র যে নির্বাচনটা হয়ে গেল। ওই নির্বাচনও মানুষের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন ছিল। সে সময় সরকার বলেছিল ঠিক আছে, খুব দ্রুত একটা সুষ্ঠু অবাধ নির্বাচন হবে। কিন্ত সেই আশাতে আমরা ড. কামাল হোসেন গণফোরামকে নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করলাম। অনেক আশা ছিল আমাদের যে এইবার হয়তো একটা সুষ্ঠু অবাধ নির্বাচন জাতি পাবে।

তিনি আরও বলেন, এই নির্বাচনটা এমন আকার ধারণ করবে, আমরা আশা করিনি। যাই হোক, আমাদের যদি যেতে হয় সংলাপে তাহলে আমরা আগে বসে একটা সিদ্ধান্তে উপনীত হয়ে তারপর সেখানে আমাদের দাবিগুলো তুলো ধরবো।

টকশো’র উপস্থাপক জামায়াতকে নিয়ে বিএনপির বর্তমান অবস্থা নিয়ে জানতে চাইলে গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপির অবশ্যই ভুলভ্রান্তি ছিল। একই ভুল আওয়ামী লীগেরও ছিল। আসলে এগুলো থেকে আমাদের শিক্ষা নেওয়া উচিত। আমরা বার বার একই ভুল করব না। একে অপরের দোষ করেই যাচ্ছি। এমন ভুল বার বারই কি জাতির সামনে করা হবে? এতে রেজাল্টটা কি হবে? আমরা একপর্যায়ে সংঘাতের মুখেমুখি হতে যাচ্ছি। অবশেষে জাতিকে বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে দিচ্ছি।

তিনি বলেন, কে শেষ হয়ে যাবে, শেষ হবে না? কে কি আকার ধারণ করবে সেটা তো পরের ব্যাপার। কিন্তু সেই ঘটনার জন্য যদি আমরা অপেক্ষা করি তাহলে চরম বিপর্যয়ে দাড়াঁবে। আমরা সেই অপেক্ষা না করে যে যেখানে আছি নিজেদের জায়গা থেকে সংঘাতকে পরিহার করি, দেশের সেবায় জাতিকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হই।

সূত্রঃ বিডি২৪লাইভ