দুপুর ২:৫৫ শুক্রবার ১৯শে জুলাই, ২০১৯ ইং

রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসে ভোটের অধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে: ফখরুল

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : জানুয়ারি ৫, ২০১৯ , ৫:৪৬ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : রাজনীতি
পোস্টটি শেয়ার করুন

রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মধ্যদিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আবারও জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে। আর এর মাধ্যমে আওয়ামী লীগ ও প্রশাসন সম্পূর্ণভাবে গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

৩০ ডিসেম্বর ভোটের রাতে নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গণধর্ষণের শিকার ওই নারী ও তার পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা জানাতে নোয়াখালী যাওয়ার পথে শনিবার সকালে কুমিল্লার একটি রেস্তোরাঁয় যাত্রা বিরতিকালে তিনি এসব কথা বলেন।

নির্বাচন পূর্ব সহিংসতা, ভোটের দিনের সহিংসতা এবং নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার মধ্যদিয়ে গোটা বাংলাদেশে একটা সহিংস ত্রাস এবং ভীতির নৈরাজ্য সৃষ্টি করা হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা দেখেছি নোয়াখালীতে আমাদের এক বোন ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষণসহ সারা বাংলাদেশের সহিংসতার আমরা নিন্দা জানিয়েছি এবং এই সহিংসতা প্রতিরোধ করতে জনগণের কাছে আমরা আহ্বান জানিয়েছি।

এর আগে শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে সড়ক পথে রওনা হন তিনিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে এই সফরে রয়েছেন- নোয়াখালীর ওই আসনের বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য দলের ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব, কৃষক, শ্রমিক, জনতা লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের সিদ্দিকী, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মাহবুবউদ্দিন খোকন, হারুনুর রশীদ, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, কেন্দ্রীয় নেতা রেহানা আখতার রানু, সৈয়দ আসিফা আশরাফী পাপিয়া।