রাত ৪:১২ সোমবার ২১শে জুলাই, ২০১৯ ইং

কাজের ক্ষেত্রে ‘না’ করো না

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : জানুয়ারি ৩, ২০১৯ , ৩:২০ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : স্বাস্থ্য
পোস্টটি শেয়ার করুন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেছেন, প্রকৃতপক্ষে শর্টকার্ট বলে কিছু নেই। নিউরো সার্জারিতে এই কথাটি আরো বেশি গুরুত্ব বহন করে। সততা ও নৈতিকতার সঙ্গে অবিরাম কাজ করে গেলে সফলতা আসবেই।

তিনি বলেন, কাজের ক্ষেত্রে ‘না’ করো না। কর্মজীবন উপভোগ্য করে তোলো। ক্ষুদ্র স্বার্থ জলাঞ্জলি দিয়ে বৃহত্তর স্বার্থের জন্য নিজেকে উৎসর্গ করতে হবে। বৃহস্পতিবার বিএসএমএমইউ’র নিউরো সার্জারি বিভাগ থেকে অবসর গ্রহণ উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনায় বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।

নিউরো সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এটিএম মোশারেফ হোসেনের সভাপতিত্বে ও অধ্যাপক ডা. আখলাক হোসেন খানের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন সাবেক মন্ত্রী, বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল ও ১৪ দলের নেতা দিলীপ বড়ুয়া, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান।

এছাড়া বক্তব্য দেন উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, সাবেক উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লাহ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, সার্জারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মো. জুলফিকার রহমান খান, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এ বিএম আব্দুল হান্নান, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোজাফফর আহমেদ, পরিচালক (হাসপাতাল) বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. আব্দুল্লাহ আল হারুন, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী, উপাচার্য সহধর্মিণী সহযোগী অধ্যাপক ডা. শিউলী চৌধুরী প্রমুখ।

বক্তব্য দেন সিনিয়র শিক্ষক অধ্যাপক ডা. সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জী, অধ্যাপক ডা. এম আফজাল হোসেন, অধ্যাপক ডা. আবুল খায়ের, অধ্যাপক ডা. নকুল কুমার দত্ত, অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আতিকুল হক, অধ্যাপক ডা. আব্দুল জলিল চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. এ কে এম আনোয়ারুল ইসলাম, অধ্যাপক ডা. চৌধুরী আলী কাওসার, অধ্যাপক ডা. আসিফ বরকতউল্লাহ, অধ্যাপক ডা. নোমান খালেদ চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. শেখ সাদের হোসেন, অধ্যাপক ডা. সালেহা বেগম চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. মো. কামরুল হাসান জায়গীরদার, কর্নেল ডা. আমিনুল ইসলাম, অধ্যাপক ডা. দীপিকা বড়ুয়া, নিউরো সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন।

সহযোগী অধ্যাপক ডা. মওদুদুল হক, সহযোগী অধ্যাপক ডা. ধীমান চৌধুরী, সহযোগী অধ্যাপক ডা. আইয়ুব আনসারী, সহযোগী অধ্যাপক ডা. হারাধন দেবনাথ, সহযোগী অধ্যাপক ডা. আসিফুর রহমান, সহযোগী অধ্যাপক ডা. রেজাউল আমিন, সহযোগী অধ্যাপক ডা. কে এম তারিকুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, মেডিকেল অফিসার ডা. রবার্ট আহমেদ খান বক্তব্য দেন।

অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার সংক্ষিপ্ত জীবনী পাঠ করেন সহযোগী অধ্যাপক ডা. ধীমান চৌধুরী। মানপত্র পাঠ করেন অধ্যাপক ডা. আখলাক হোসেন। ডা. ভাগ্যধন বড়ুয়া রচিত কবিতা পাঠ করেন ডা. রাজীব ভট্টাচার্য। স্মৃতিচারণ করেন ডা. নাজমীন ইসলাম লোপা, ডা. নওশীন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে মেডিসিন অনুষদের সাবেক ডিন এবিএম আব্দুল্লাহ, ইউরোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এ কে এম খুরশিদুল আলম, আইসিউ বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এ কে এম আখতারুজ্জামান, অধ্যাপক ডা. দেবব্রত বনিক ছাড়াও নিউরো সার্জারিসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, ছাত্রছাত্রী, চিকিৎসক, কর্মকর্তা, নার্স, কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, ‘নিউরো সার্জারির মতো একটি জটিল বিষয়কে দেশে-বিদেশে ছড়িয়ে দিতে এবং নিউরো সার্জারি বিষয়ের উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখেছেন ও যা অব্যাহত রয়েছে। তিনি নিউরো সার্জারি বিষয়ের অন্যতম অগ্রপথিক। প্রশাসক হিসেবেও তিনি দক্ষ ও সফল। জীবনে সফল হওয়ার ক্ষেত্রে তাকে অনেক বাধা অতিক্রম করতে হয়েছে।

রাষ্ট্রপতি কর্তৃক নিযুক্ত হয়ে অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া গত ২৪ মার্চ উপাচার্য হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। তিনি আগামী ২০২১ সালের ২৩ মার্চ পর্যন্ত এই দায়িত্ব পালন করবেন। অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতিরও দায়িত্ব পালন করেছেন।

দেশের চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া ১৯৫৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার হাইত কান্দি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার মাতার নাম প্রয়াত সুখদা বড়ুয়া এবং পিতার নাম প্রয়াত ডা. শুভংকর বড়ুয়া।

পারিবারিক জীবনে তার স্ত্রী ডা. শিউলি চৌধুরী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস অ্যান্ড গাইনি বিভাগে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি দুই সন্তানের জনক। বড় ছেলে ডা. সুদীপ বড়ুয়া এবং কনিষ্ঠপুত্র সৌমিক বড়ুয়া আমেরিকায় অধ্যয়নরত।

অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া ছাত্রজীবন থেকেই অত্যন্ত মেধাবী। তিনি ১৯৭৭ সালের এপ্রিলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। তিনি ১৯৯০ সালে এফসিপিএস, ২০০৩ সালে এমস (নিউরো সার্জারি), ২০০৪ সালে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

তিনি ১৯৯৩ সালে যুক্তরাষ্ট্র থেকে এফআইসিএস (অ্যাওয়ার্ডেড ফেলোশিপ অব ইন্টারন্যাশনাল কলেজ অফ সার্জন্স) অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হন। অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া ২০১২ সালে শ্রীলঙ্কা থেকে অনারারি এফএসএলসিএস এবং কলেজ অব ফিজিশিয়ান্স অ্যান্ড সার্জন্স, পাকিস্তান থেকে অনারারী এফসিপিএস ডিগ্রি অর্জন করেন।

দেশ-বিদেশে নিউরো সার্জারি বিষয়ে চিকিৎসাসেবা, গবেষণা ও শিক্ষকতায় অসামান্য অবদান রাখায় ২০১৮ সালে তিনি রয়্যাল কলেজ অব ফিজিশিয়ান্স অব লন্ডন কর্তৃক সম্মানসূচক ফেলোশিপ লাভ করেন। এ ছাড়াও তিনি চিকিৎসা পেশায় অসামান্য অবদান রাখায় ২০১৮ সালে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন অব নর্থ আমেরিকা (বিএমএএনএ) কর্তৃক আন্তর্জাতিকমানের বিএমএএনএ রিকগনিশন অ্যাওয়ার্ড ২০১৮ লাভ করেন।