রাত ১১:৪০ মঙ্গলবার ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

‘প্রেসের সহযোগিতা পাইনি, বৈরিতার মুখোমুখি হয়েই অগ্রসর হয়েছি’

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 17, 2018 , 11:38 am
ক্যাটাগরি : জাতীয়,বিপিএল 2019
পোস্টটি শেয়ার করুন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আমি কখনো প্রেসের কাছ থেকে খুব বেশি সহযোগিতা পাইনি। সব সময় একটা বৈরিতা ও সমালোচনার মুখোমুখি হয়েই অগ্রসর হতে হয়েছে। কিন্তু সেইগুলি নিয়ে মাথা ঘামাইনি।’

বৃহস্পতিবার (১৭ মে) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের বিএফইউজে’র দ্বিবার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের একটা ভূমিকা রাখার দাবি করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজ আওয়ামী লীগের সভাপতি হয়ে বাংলাদেশে আসার পর ৩৭ বছর পূর্ণ হলো। তবে দুঃখের কথা, আমি কখনো প্রেসের কাছ থেকে খুব বেশি সহযোগিতা পাইনি। কিন্তু আমি সেইগুলি নিয়ে মাথা ঘামাইনি। কারণ আমি জানি, আমি কি কাজ করছি এবং ন্যায় ও সত্যের পথে থাকলে ফলাফল পাওয়া যায়, এটা আমি বিশ্বাস করি এবং বিশ্বাস করেছি।’

যারা সমর্থন করেছেন তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, ‘এমনকি ২০০১ পরেও আমি দেখেছি, অনেকেই বিএনপির অত্যাচার-নির্যাতনের কথাটা লিখতে চায়নি। এমনও বলেছে, তিন মাস সময় দেওয়া উচিৎ। মানে তিন মাসে মেরে সব সাফ করে দিক। হাতুড়ি দিয়ে মানুষ পিটিয়ে মারা, চোখ তুলে ফেলা, বাড়ি দখল করা কিনা করেছে? আবার অনেকে সাহসের সাথে সংবাদ দিয়েছে। কাজেই যারা দিয়েছে তাদের ধন্যবাদ জানাই। আর যারা দেয়নি তাদের করুণা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। কারণ আপনারা জানে দুটি পত্রিকা আমি পড়িও না রাখিও না। আমার গণভবনে তাদের ঢোকা নিষেধ, দরকার নেই আমার। ওই সার্কাসের গাধার মতো যারা বসেই থাকে দড়ি ছিঁড়বে কবে আর পতাকা পাবে কবে, তাদের দিয়ে তো আমার দেশের জন্য কল্যাণ হবে না।’

সাইবার অপরাধ নিয়ন্ত্রণে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট করার বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার বিষয়ে বলেন, ‘জানি না, আমাদের সাংবাদিকরা অহেতুক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে যাচ্ছে। সাইবার ক্রাইম আইন হলে বোধহয় সাংবাদিকদের হয়রানি করা হবে? কোনো সাংবাদিক যদি হয়রানি করার মতো কোনোকিছু না করে তাহলে তাকে কেন হয়রানি করা হবে? আওয়ামী লীগ তো হয়রানি করে না। আমাদের বিরুদ্ধে তো সমালোচনা চলছে। আমি প্রতি ১৫ দিনের যদি সমস্ত পত্রিকা এবং বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন আছে তার ১৫ দিনের হিসাব সংগ্রহ করে দেখেছি, অধিকাংশ দেখা যায়, আমরা সরকারে আছি, আমাদের বিরুদ্ধে নেগেটিভ কথাটাই বেশি।’

একটা মানসিক ব্যাধি আছে আমাদের দেশে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘কারণ ধারণা আছে, সরকারের বিরুদ্ধে না বললে বুঝি মিডিয়া চলবেই না। এই মানসিক ব্যাধি থেকে উত্তরণ ঘটাতে হবে। আমরা কারো কাছে দয়া চাই না। আমরা কারো ফেভার চাই না। কিন্তু অন্তত এইটুকু দাবি করতে পারি, দেশের জন্য যদি কোন ভাল কাজ করে থাকি সেটা যেন একটু ভালভাবে প্রচার করা হয়। অন্তত এইটুকু করা হোক। এটা আমার স্বার্থে না। আমাদের দলের স্বার্থে না। এটা দেশের স্বার্থে। দেশের ভাবমূর্তিটা বাইরে যাতে উজ্জ্বল হয়।

বিএফইউজে’র সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, তথ্য মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ের সভাপতি আবু জাফর সূর্যসহ সারাদেশের বেশ কয়েকটি সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক।