দুপুর ২:১৭ বৃহস্পতিবার ২০শে জুন, ২০১৯ ইং

ঢাকার ২০ আসনে ভোটের লড়াইয়ে ১৬৪ প্রার্থী

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : ডিসেম্বর ১১, ২০১৮ , ৪:৪৩ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : রেসিপি
পোস্টটি শেয়ার করুন

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া শেষ হয়েছে গতকাল সোমবার (১০ ডিসেম্বর)। এর আগেই অবশ্য মনোনয়নপত্র জমা, যাচাই-বাছাই ও প্রত্যাহার শেষ হয়েছে। সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, সারাদেশে ভোটের মাঠে লড়বেন এক হাজার ৮৪১ প্রার্থী। এর মধ্যে ঢাকার ২০টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৬৪ জন প্রার্থী।

প্রতীক বরাদ্দের পর শুরু হয়েছে নির্বাচনী প্রচারণা। তবে আচরণবিধি নিরূপণে প্রতিটি আসনে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট ও দু’জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা কাজ করছেন।

ঢাকা-১ আসনে ৮ প্রার্থী
ঢাকা-১ আসনে লড়ছেন আওয়ামী লীগের সালমান ফজলুর রহমান ওরফে সালমান এফ রহমান (নৌকা), বিএনপির খন্দকার আবু আশফাক (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলনের কামাল হোসেন (হাতপাখা), বিকল্পধারার জালাল উদ্দিন (কুলা), বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) আবিদ হোসেন (কাস্তে), জাকের পার্টির সামসুদ্দিন আহমদ (গোলাপ ফুল), বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সিকান্দার হোসেন (কোদাল) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী সালমা ইসলাম (গাড়ি)।

ঢাকা-২ আসনে ৭ জন
এ আসনে আওয়ামী লীগের হয়ে লড়ছেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো. কামরুল ইসলাম (নৌকা), বিএনপির ইরফান ইকবাল ইবনে আমান অনিক (ধানের শীষ), গণফোরামের মোস্তফা মহসিন মন্টু (উদীয়মান সূর্য), বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আতাউল্লাহ (বটগাছ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. জহিরুল ইসলাম (হাতপাখা), জাতীয় পার্টির শাকিল আহমেদ শাকিল (লাঙ্গল) এবং বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সুকান্ত শফি চৌধুরী (কাস্তে)।

ঢাকা-৩ আসনে ৪ জন
বিএনপির গয়েশ্বর চন্দ্র রায় (ধানের শীষ), আওয়ামী লীগ প্রার্থী নসরুল হামিদ (নৌকা), গণফোরামের মোস্তফা মহসিন মন্টু (উদীয়মান সূর্য), ইসলামী অন্দোলন বাংলাদেশের মো. সুলতান আহাম্মদ খান (হাতপাখা) এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ঢাকা-৪ আসনে ৯ জন
এ আসনে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচন করছেন জাতীয় পার্টির সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে রয়েছেন বিএনপি প্রার্থী সালাউদ্দীন আহমেদ, এছাড়া জাকের পার্টির মো. আজাদ মাহমুদ (গোলাপ ফুল), ইসলামী ঐক্যজোটের মো. শাহ্ আলম (মিনার), জাসদের মো. হাবিবুর রহমান শওকত (মশাল), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির সুমন কুমার রায় (আম), গণফ্রন্টের সহিদুল ইসলাম মোল্লা (মাছ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সৈয়দ মো. মোসাদ্দেক বিল্লাহ (হাতপাখা) এবং বিকল্পধারা বাংলাদেশের মো. কবির হোসেন (কুলা)।

ঢাকা-৫ আসনে ১০ জন
এ আসনে নৌকার প্রার্থী বর্তমান সংসদ হাবিবুর রহমান মোল্লা, ধানের শীষের প্রার্থী নবীউল্লাহ, গণফোরামের এসএম আলতাফ হোসেন (উদীয়মান সূর্য), জাতীয় পার্টির মীর আবদুস সবুর (লাঙ্গল), বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির মো. আবদুর রশিদ ওরফে আবদুর রশিদ সরকার (কুঁড়েঘর), ইসলামী ঐক্যজোটের মো. আবদুল কাইয়ুম (মিনার), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আরিফুর রহমান ওরফে সুমন মাস্টার (আম), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আলতাফ হোসেন (হাতপাখা), জাকের পার্টির মো. রবিউল ইসলাম (গোলাপ ফুল) ও গণফ্রন্টের শামীম মিয়া (মাছ)।

ঢাকা-৬ আসনে ৮ জন
এ আসনে মহাজোটের প্রার্থী হয়েছেন জাতীয় পার্টির বর্তমান সংসদ কাজী ফিরোজ রশীদ, ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচন করছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ও গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, গণফ্রন্টের আহমেদ আলী শেখ (মাছ), বাংলাদেশ মুসলিম লীগের ববি হাজ্জাজ (হারিকেন), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আক্তার হোসেন (আম), বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির মো. আবু তাহের হোসেন (কাস্তে), জাতীয় পার্টি-জেপির সৈয়দ নাজমুল হুদা (বাইসাইকেল) ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাজী মো. মনোয়ার খান (হাতপাখা)।

ঢাকা-৭ আসনে ১২ জন
এ আসনে নৌকা নিয়ে লড়ছেন বর্তমান স্বতন্ত্র সাংসদ ও আওয়ামী লীগ নেতা হাজী মো. সেলিম, ধানের শীষ নিয়ে লড়ছেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের খালিকুজ্জামান (মই), জাতীয় পার্টির তারেক আহমেদ আদেল (লাঙ্গল), জাকের পার্টির বিপ্লব চন্দ্র বণিক (গোলাপ ফুল), গণফ্রন্টের মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন (মাছ), বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মো. আফতাব হোসেন মোল্লা (হারিকেন), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আবদুর রহমান (হাতপাখা), বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফের মো. জাহাঙ্গীর হোসেন (টেলিভিশন), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. মাসুদ পাশা (আম), গণফোরামের মো. মোশাররফ হোসেন (উদীয়মান সূর্য) এবং বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. হাবিবুল্লাহ (বটগাছ)।

ঢাকা-৮ আসনে ১৪ জন
১৪ দলের প্রার্থী হিসেবে নৌকা নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী ও ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, শীষের প্রার্থী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ইসলামী ঐক্যজোটের আবু নোমান মোহাম্মদ জিয়াউল হক মজুমদার (মিনার), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল-পিডিপির আবুল কালাম আজাদ (বাঘ), বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের আবদুস সামাদ সুজন (টেলিভিশন), বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের এসএম সরওয়ার (মোমবাতি), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আবুল কাশেম (হাতপাখা), জাতীয় পার্টির মো. ইউনুছ আলী আকন্দ (লাঙ্গল), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. সাবের আহাম্মদ ওরফে কাজী ছাব্বির (আম), গণফ্রন্টের মো. জাকির হোসেন (মাছ), জাকের পার্টির মো. নজরুল ইসলাম লিটন (গোলাপ ফুল), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদের শম্পা বসু (মই), বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির শমি আক্তার শিল্পী (গাভী), বাংলাদেশ মুসলিম লীগের হাসিনা হোসেন (হারিকেন)।

ঢাকা-৯ আসনে ৭ জন
আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান সাংসদ সাবের হোসেন চৌধুরী এবং বিএনপির প্রার্থী মির্জা আব্বাসের স্ত্রী জাতীয় মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মাহফুজা আক্তার (আম), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. মানিক মিয়া (হাতপাখা), বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের মো. শফিউল্লাহ চৌধুরী (টেলিভিশন), বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মো. আবদুল মোতালেব (হারিকেন) এবং জাকের পার্টির মো. হুমায়ুন কবীর (গোলাপ ফুল)।

ঢাকা-১০ আসনে ৬ জন
নৌকার প্রার্থী বর্তমান সাংসদ শেখ ফজলে নূর তাপস, ধানের শীষের প্রার্থী আবদুল মান্নান, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির কে এম শামসুল আলম (আম), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আবদুল আউয়াল (হাতপাখা), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের মো. বাহারান সুলতান বাহার (বাঘ), জাতীয় পার্টির মো. হেলাল উদ্দীন (লাঙ্গল)।

ঢাকা-১১ আসনে ৮ জন
নৌকার প্রার্থী এ কে এম রহমতউল্লাহ এবং ধানের শীষের প্রার্থী শামীম আরা বেগম, জাতীয় পার্টির এস এম ফয়সাল চিশতী (লাঙ্গল), গণফোরামের মোজাম্মেল হক বীরপ্রতীক (উদীয়মান সূর্য), বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির মো. আবদুল বাতেন (কাঁঠাল), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আমিনুল ইসলাম (হাতপাখা), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. মিজানুর রহমান (আম) এবং বাংলাদেশ মুসলিম লীগের শরীফ মো. মিরাজ হুসেইন (হারিকেন)।

ঢাকা-১২ আসনে ৬ জন
নৌকার প্রার্থী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, ধানের শীষের প্রার্থী সাইফুল আলম নীরব, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোহাম্মদ শওকত আলী হাওলাদার (হাতপাখা), বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির মো. জোনায়েদ আবদুর রহিম সাকি (কোদাল), জাতীয় পার্টির মো. নাসিরউদ্দিন সরকার (লাঙ্গল) ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির শাহীন খান (আম)।

ঢাকা-১৩ আসনে ১০ জন
আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঢাকা মহানগর (উত্তর আওয়ামী লীগের) সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান এবং বিএনপির প্রার্থী দলটির কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির খান আহসান হাবিব (কাস্তে), বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের দুলাল কান্তি লাল (টেলিভিশন), বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মুহাম্মদ আবদুল হাকিম (মোমবাতি), বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশনের মো. কামরুল আহসান (ফুলের মালা), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের মো. জিহাদুল করিম টিপু (বাঘ), বিকল্পধারা বাংলাদেশের মো. মাহবুবুর রহমান (কুলা), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. মুরাদ হোসেন (হাতপাখা) এবং জাতীয় পার্টির মো. শফিকুল ইসলাম (লাঙ্গল)।

ঢাকা-১৪ আসনে ৭ জন
নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান সাংসদ আসলামুল হক এবং ধানের শীষ নিয়ে বিএনপির প্রার্থী সৈয়দ আবু বকর সিদ্দিক নির্বাচন করছেন।

এছাড়া বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের মো. আনোয়ার হোসেন (টেলিভিশন), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আবু ইউসুফ (হাতপাখা), জাতীয় পার্টির মোস্তাকুর রহমান (লাঙ্গল), জাকের পার্টির মো. জাকির হোসেন (গোলাপ ফুল) এবং বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির রিয়াজ উদ্দিন (কাস্তে)।

ঢাকা-১৫ আসনে ১০ জন
নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কামাল আহমেদ মজুমদার, ধানের শীষ নিয়ে প্রার্থী হয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ডা. মো. শফিকুর রহমান, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির আহাম্মদ সাজেদুল হক (কাস্তে), বিকল্পধারা বাংলাদেশের এইচএম গোলাম রেজা (কুলা), বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের এসএম ইসলাম ( টেলিভিশন), জাকের পার্টির মো. আবদুল মান্নান মিয়া (গোলাপ ফুল), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের মো. শামসুল আলম চৌধুরী (বাঘ), জাতীয় পার্টির মো. শামসুল হক (লাঙ্গল), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. হেমায়েতুল্লাহ (হাতপাখা) ও বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির সাইফুল ইসলাম (কাঁঠাল)।

ঢাকা-১৬ আসনে ৭ জন
নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান সাংসদ ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ, ধানের শীষ নিয়ে বিএনপির প্রার্থী আহসান উল্লাহ হাসান, জাকের পার্টির আলী আহম্মেদ (গোলাপ ফুল), বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির নাঈমা খালেদ মনিকা (কোদাল), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিদ্দিকুর রহমান (হাতপাখা), জাতীয় পার্টির মো. আমানত হোসেন (লাঙ্গল) ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. ফরিদ উদ্দিন শেখ (আম)।

ঢাকা-১৭ আসনে ১০ জন
জাতীয় পার্টির প্রার্থী এইচ এম এরশাদ (লাঙ্গল) এবং আওয়ামী লীগের প্রার্থী আকবর হোসেন পাঠান (নায়ক ফারুক-নৌকা), বিএনপির হয়ে লড়ছেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির নেতা আন্দালিভ রহমান পার্থ (ধানের শীষ), বর্তমান সাংসদ বিএনএফের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ (টেলিভিশন), তৃণমূল বিএনপির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা (সিংহ), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের আলী হায়দার (বাঘ), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের এসএম আহসান হাবিব (মই), জাকের পার্টির কাজী মো. রাশিদুল হাসান (গোলাপ ফুল), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আমিনুল হক তালুকদার (হাতপাখা) এবং বিকল্পধারা বাংলাদেশের লে. কর্নেল ডা. (অব.) এ কে এম সাইফুর রশিদ (কুলা)।

ঢাকা-১৮ আসনে ৮ জন
আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান সাংসদ ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন এ আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন, ধানের শীষে নির্বাচন করবেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির শহীদ উদ্দীন মাহমুদ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. মাসুম বিল্লাহ (আম), বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মোহাম্মদ আবদুল মোমেন (মোমবাতি), বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের মো. আতিকুর রহমান নাজিম (টেলিভিশন), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আনোয়ার হোসেন (হাতপাখা), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের মো. রফিকুল ইসলাম (বাঘ) ও বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মো. রেজাউল ইসলাম স্বপন (হারিকেন)।

ঢাকা-১৯ আসনে ৮ জন
আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান সাংসদ ডা. মো. এনামুর রহমান (নৌকা), বিএনপি প্রার্থী দেওয়ান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন (ধানের শীষ), ইসলামী অন্দোলন বাংলাদেশের মোহাম্মদ ফারুক খান (হাতপাখা), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের (পিডিপি) মোহাম্মদ সারোয়ার হোসেন (বাঘ), বিকল্পধারার আইনুল হক (কুলা), জাতীয় পার্টির আবুল কালাম আজাদ (লাঙ্গল) ও বাংলাদেশ মুসলিম লীগের ইদ্রিস আলী (হারিকেন)।

ঢাকা-২০ আসনে ৫ জন
আওয়ামী লীগের বেনজীর আহম্মদ (নৌকা), বিএনপির প্রার্থী মো. তমিজ উদ্দিন (ধানের শীষ), ইসলামী অন্দোলন বাংলাদেশের মো. আবদুল মান্নান (হাতপাখা), জাতীয় পার্টির খান মোহাম্মদ ইসরাফিল (লাঙ্গল) এবং জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) এম এ মান্নান (তারা)।