বিকাল ৪:১৯ মঙ্গলবার ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

মহাকাশে যাচ্ছে আমাদের স্যাটেলাইট

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 10, 2018 , 6:10 pm
ক্যাটাগরি : জাতীয়
পোস্টটি শেয়ার করুন

মহাকাশে যাচ্ছে আমাদের স্যাটেলাইট- এই উন্মাদনায় কদিন ধরেই মেতেছে পরিচিত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। ফেসবুকে যেন মহাকাশ জয়ের ছোঁয়া লেগেছে। গত কয়েকদিন ধরেই ‘স্যাটেলাইট’ উন্মাদনায় ভুগছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহারকারীরা। ফেসবুকের বহু ব্যবহারকারীই অংশ নিয়েছেন ‘ভার্চুয়াল উৎসবে’। ‘মহাকাশে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ ফ্রেমে পরিবর্তন করছেন নিজেদের প্রোফাইল পিক। কেউ কেউ পাল্টে দিয়েছেন কাভার ফটোও। পাশাপশি গর্বিত বাংলাদেশী হিসেবে অনেকেই জানাচ্ছেন নিজের অনুভূতি। এ যেন এক স্বপ্নজয়ের ভার্চুয়াল উন্মাদনা।

ফেসবুকে অনেকে লিখেছেন, আজ রাতটি হবে উৎসবের। মহাকাশে উড়বে বাংলাদেশের স্যাটেলাইট। কয়েকবার পরিবর্তনের পর সর্বশেষ দিনক্ষণ। একাধিক পরীক্ষাও সম্পন্ন। কেনেডি স্পেস সেন্টার ও নাসাও জানিয়েছে সময়। সব প্রস্তুতিই শেষ। অনুকূল আবহাওয়া ও যান্ত্রিক গোলযোগ না ঘটলে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে বৃহস্পতিবার (১০ মে) বিকাল ৪ টা ১২ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ২ টা ১২ মিনিট) মহাকাশে উড়বে বাংলাদেশের এই কৃত্রিম উপগ্রহ।

গত ১৮ মে স্পেস এক্স তাদের এক টুইট বার্তায় নতুন এই সময় জানায়। ওই টুইটে রি-টুইট করে অনেক বাংলাদেশিকে আনন্দ প্রকাশ করতে দেখা গেছে। রি-টুইট সম্পর্কিত স্ক্রিনশট কোন কোন ব্যবহারকারী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও প্রকাশ করেছেন। অনেককে আবার ওই টুইটে বাংলাদেশকে অভিনন্দন কিংবা নিজেদের অপেক্ষা আর উত্তেজনার কথাও প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের বড় অংশেরই পোস্টগুলো এখন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটময়। প্রায় সব পোস্টেই উঠে এসেছে মহাকাশ জয়ের সাফল্যগাঁথা। ফেসবুক ব্যবহারকারী সাজেদুর রহমান সুমন নিজের ওয়ালে লিখেছেন, ‘বিশ্বের ৫৭তম স্যাটেলাইট সদস্য রাষ্ট হিসাবে যোগ হচ্ছে বাংলাদেশের নাম। বুকের ছাতিটা এমনিতেই টান টান হয়ে উঠে।’ শঙ্খনীল দেব লিখেছেন, ‘নিজস্ব স্যাটেলাইটের গর্বিত মালিক হতে যাচ্ছি আমরা। এ এক অন্যরকম অনুভূতি।’ ফয়সাল মাহমুদ নীল লিখেছেন, ‘মহাকাশ বিজয়ের পথে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ।’ মারুফ অমিত লিখেছেন, ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট- ১। আরো বহুদূর এগিয়ে যাক বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ।’ অনিমেষ রহমান লিখেছেন, “যে আমেরিকার এক সময়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেনরী কিসিঞ্জার বাংলাদেশকে ‘তলাবিহীন ঝুড়ি’ বলেছিল সেই আমেরিকার ফ্লোরিডা থেকেই উৎক্ষেপিত হচ্ছে ‘বাংলা স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১’। ইহাকেই বলা হয় ‘ঢিলের বদলে পাটকেল’।” তৌফিকুল হক অনু লিখেছেন, ‘…আমাদের নিজস্ব উপগ্রহ মহাকাশে যাচ্ছে। এই উপগ্রহটা আমাদের, একবার ভাবুন। এই উপগ্রহটা শুধু আমাদের নিজের। আনন্দ হচ্ছে খুব আনন্দ হচ্ছে। আর চিৎকার করে বলতে ইচ্ছা করছে, ঐ কিসিঞ্জার…’

কিশোর মাহমুদ নিজের ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন, ‘শুধুমাত্র অর্থনৈতিক সক্ষমতা অর্জন করলেই একটি দেশ একটি সাবমেরিন বা একটি স্যাটেলাইটের গর্বিত অধিকারী হতে পারে না। একটি সাবমেরিন বা একটি স্যাটেলাইটের মালিকানা পেতে আপনাকে অনেকগুলা ফ্যাক্টের উপর নির্ভর করতে হবে। আপনাকে আন্তর্জাতিক মহলে গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করতে হবে। আপনার লবিটা শক্তিশালী হতে হবে। বহির্বিশ্বকে বিশ্বাস করাতে হবে আপনি বা আপনার দেশ অন্য কারও নিরাপত্তার জন্য হুমকি নন।’

ফেসবুক, টুইটার ও ইনস্টাগ্রাম ‘বঙ্গবন্ধু-১’ ও ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ হ্যাশট্যাগ সম্বলিত পোস্টে এখন সয়লাব। গত কয়েকদিনে ইউটিউবেও আপলোড হয়েছে নতুন নতুন ভিডিও। এসব পোস্ট, ভিডিও আর তথ্যে উঠে আসছে বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়। ক্ষণগণনা করছেন অনেকেই। দেশের বিভিন্ন স্থানে সময়টিতে স্মরণীয় করতে নেওয়া হয়েছে প্রস্তুতিও।

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়ও এখন আনন্দ উৎসব। দেশটিতে বসবাসকারী বাসিন্দারা জড়ো হয়েছেন সেখানে। ফ্লোরিডার অরলান্ডোতে থাকা এনায়েত করিম মুরাদ সারাবাংলাকে বলেন, জন এফ কেনেডি এয়ারস্পেসের আশেপাশে ব্যাপক সংখ্যক বাঙ্গালী অবস্থান করছেন। সবার মধ্যেই এখন উৎসব আনন্দ।

সারাবাংলা/ইএইচটি/এসবি