ভোর ৫:৩০ মঙ্গলবার ২১শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

দুই সহপাঠীকে হারানো শিক্ষার্থীরা ফুটওভার ব্রিজ চান

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : অক্টোবর ১৪, ২০১৮ , ২:১৪ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : চট্টগ্রাম,দেশজুড়ে
পোস্টটি শেয়ার করুন

ব্যস্ততম ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে গড়ে উঠেছে চান্দিনা উপজেলার বড়গোবিন্দপুর আলী মিয়া ভূঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয়। ওই বিদ্যালয়ের দুই তৃতীয়াংশ শিক্ষার্থীই প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পার হয়ে স্কুল আসা-যাওয়া করছে। এতে মারাত্মক দুর্ঘটনার ঝুঁকি রয়েছে।

চান্দিনা উপজেলা সীমানার এক কোণে ওই বিদ্যালয়টির অবস্থান। যার এক পাশে রয়েছে দেবিদ্বার উপজেলা ও অপর পাশে রয়েছে বুড়িচং উপজেলার সীমানা। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দক্ষিণ পাশে চান্দিনা উপজেলার বড় গোবিন্দপুর গ্রামে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত আর মহাসড়কের উত্তর পাশে রয়েছে দেবিদ্বার উপজেলার বরকামতা ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রাম এবং পূর্ব ও উত্তরে রয়েছে বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের আরও অন্তত ৫টি গ্রাম। ফলে তিন উপজেলার প্রায় ১২শ’ শিক্ষার্থী নিয়মিত লেখাপড়া করছে ওই বিদ্যালয়টিতে। এদের মধ্যে প্রায় ৮ শতাধিক শিক্ষার্থী নিয়মিত মহাসড়ক পার হয়ে বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া করছে।

এ বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত অবস্থায় যাতায়াত করে বিভিন্ন সময়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে এই বিদ্যালয়ের ২ জন শিক্ষার্থীর মৃত্যু এবং অন্তত ১০ জন শিক্ষার্থী পঙ্গুত্ব বরণ করেছে বলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহানারা নাছরিন জানিয়েছেন। দুর্ঘটনা প্রবণ ওই স্থানটিতে একটি ফুটওভার ব্রিজ তৈরি করা হলে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তা আসবে বলে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা দাবি জানিয়েছেন।

বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র আবদুল্লাহিল রাফি জানায়, আমরা প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পাড় হই। প্রধানমন্ত্রীর নিকট অনুরোধ এখানে একটি ফুট ওভার ব্রিজ করে আমাদের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।

বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী নাদিয়া সুলতানা বলেন, আমাদের অনেক ভাই বোন সড়কে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে পঙ্গু হয়েছেন। দুইজন মারা গিয়েছেন। এখানে একটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ অত্যন্ত জরুরী।

শিক্ষকরা লাল পতাকা উঁচিয়ে রাস্তা পার করে দিচ্ছেন শিক্ষার্থীদের। ছবি: ইত্তেফাক

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা এবং চান্দিনা উপজেলা সড়ক নিরাপত্তা কমিটির সদস্য জাহানারা নাছরিন বলেন, আমাদের বিদ্যালয়ে প্রায় ১২ শ’ শিক্ষার্থী রয়েছে। এদের মধ্যে দুই তৃতীয়াংশ শিক্ষার্থী সড়ক পাড় হয়ে বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া করে। তাদের নিরাপত্তার কথা ভেবে বিদ্যালয় শুরুর আগে এবং ছুটির সময় শিক্ষকরা লাল পতাকা উঁচিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে শিক্ষার্থীদের রাস্তা পারাপার করে দেন।

তিনি আরও জানান, উপজেলা সড়ক নিরাপত্তা কমিটির সভায় আমি এই বিষয়টি তুলে ধরে ফুট ওভার ব্রিজ নির্মাণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহায়তা পাওয়ার চেষ্টা করেছি। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় এনে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ একটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করে দিলে আমরা উপকৃত হবো।

এ ব্যাপারে চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা সড়ক নিরাপত্তা কমিটির সভাপতি এস.এম জাকারিয়া বলেন, এই উপজেলার তিনটি স্থানে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ফুট ওভার ব্রিজ স্থাপনে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি। এর মধ্যে এই বিদ্যালয়ের সামনে একটি ফুট ওভার ব্রিজ স্থাপনের প্রস্তাবনাও রয়েছে।