বিকাল ৫:৩২ শুক্রবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

সুস্থ থাকুন তীব্র গরমেও

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 9, 2018 , 3:52 am
ক্যাটাগরি : নির্বাচিত,স্বাস্থ্য
পোস্টটি শেয়ার করুন

গরমে বাইরে ঘোরাফেরা, স্কুল-কলেজ, অফিসসহ বিভিন্ন কাজে ঘরের বাইরে যেতেই হবে। এ গরমে সুস্থ থাকা দায়! গরমে হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে যেতে পারেন আপনি। তাই থাকেতে হবে সতর্ক। তবে এই গরমের মধ্যেও নিজেকে সুস্থ ও সতেজ রাখাটাই চ্যালেঞ্জের। আসুন জেনে নেওয়া যাক, ঠিক কী কী করলে একটু স্বস্তি পাওয়া যায়।

বাইরে বের হওয়ার সময় সঙ্গে অবশ্যই একটা ছাতা রাখতে হবে। শুধু রাখলেই হবে না, রাস্তায় বের হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ছাতা মেলে মাথায় ধরতে হবে।

গরমের দিনে পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে অবশ্যই ঢিলেঢালা, হালকা রঙের এবং পাতলা বেছে নিতে হবে। ঢিলেঢালা পোশাক শরীরের অস্বস্তি কমায়। হালকা রং কম গরম ধরে রাখে এবং পাতলা কাপড়ে শরীরের ভেতর বাতাস ঢুকতে সাহায্য করে।

রোদে বের হলে অবশ্যই সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে। আমাদের আবহাওয়ায় সান প্রটেকশন ফ্যাক্টর বা এসপিএফ ৩০ এর ওপর হলে বেশি ভালো হয়।

এই সময় বিশেষ করে মেয়েরা প্রসাধনী কম ব্যবহার করবেন। কারণ বেশি প্রসাধনী মুখের ওপর ভারি আবরণ তৈরি করে। আর তখনই গরমও বেশি লাগে।

বাচ্চাদের শরীরেও খুব বেশি পাউডার না দেয়াই ভালো। তবে শরীর বার বার মুছে দিন। ঠাণ্ডার সমস্যা না থাকলে দিনে দুই বার অন্তত গোসল করাতে হবে।

গরমের দিনে হালকা পাতলা খাবার খেতে হবে। সাধারণ সবজি, ডাল, মাছ খেলে ভালো হয়। বেশি মসলাদার খাবার না খাওয়াই ভালো। কারণ মসলাদার খাবার আপনার শরীরকে বেশি গরম করে রাখে।

প্রচুর পরিমাণে পানি খেতে হবে। ফলের জুস খেতে পারেন, তবে তা অবশ্যই বাড়িতে তৈরি হতে হবে। ডাবের পানি এ সময় খুবই উপকারী।

এ সময় চা, কফি বা কোল্ড ড্রিংকস একেবারেই বাদ দেয়া উচিৎ। কারণ এগুলো পান করলে রক্তে হঠাৎ করে চিনির পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়, ফলে গরম লাগাসহ অসুস্থও করে দিতে পারে। সুস্থ থাকতে এ সময় বাইরের ফাস্ট ফুডকেও একেবারে না বলে দিন।

সম্ভব হলে বার বার গোসল করুন। না হলে ভেজা গামছা দিয়ে শরীর মুছতে পারেন। গরমের সময় বার বার হাতমুখে পানির ঝাপটা দিন। পানির ঝাপটায় ভালো লাগবে, সুস্থও থাকবেন।

কিছু টিপস:
. সুতির হাল্কা জামাকাপড় পরুন।
. লবণ-চিনি-লেবু পানি খান ঘন ঘন।
. ঠাণ্ডা নয়, ঘরের তাপমাত্রা অনুযায়ী পানি খান।
. ছাতা ও সানগ্লাস ব্যবহার করুন।
. বেশি পানিযুক্ত হাল্কা খাবার খান।
. তীব্র রোদে অপ্রয়োজনে বের হবেন না।
. রোদ থেকে ফিরে ঠাণ্ডা পানি খাওয়া থেকে বিরত থাকবেন।