সন্ধ্যা ৭:১১ শনিবার ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

গুলিতে ডান পা হারানো লিখন হাসপাতাল থেকে কারাগারে

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 8, 2018 , 4:53 pm
ক্যাটাগরি : ঢাকা,নির্বাচিত
পোস্টটি শেয়ার করুন

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পুলিশের সঙ্গে বন্ধুকযুদ্ধে গুলিতে ডান পা হারানো মাকসুদুল ইসলাম লিখনকে (৩০) ২০ দিন চিকিৎসা শেষে পঙ্গু হাসপাতাল থেকে আদালতে হাজির করে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আশেক ইমামের আদালতে হাজির করা হলে আদালত শুনানি শেষে লিখনকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

এর সত্যতা নিশ্চিত করে কোর্ট পুলিশের এসআই কামাল হোসেন বলেন, লিখনকে অস্ত্র ও মাদকের পৃথক দুই মামলায় আদালতে পাঠিয়েছেন আদালত। এ দুটি মামলায় রিমান্ড না চাওয়ায় আদালতের নির্দেশে লিখনকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। তবে পরে এ দুটি মামলায় লিখনের বিরুদ্ধে রিমান্ড চাইতে পারে পুলিশ। পুলিশ আদালতে লিখনের বিরুদ্ধে ফতুল্লাসহ বিভিন্ন থানায় অস্ত্র, মাদক, চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলা দেখিয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের (পিপিএম) জানান, ‘মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী বিশেষ অভিযানের অংশ হিসেবে ১৭ এপ্রিল মঙ্গলবার ভোরে পাগলা নিশ্চিন্তপুর এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ।

এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে ৫ থেকে ৬ জনের এক দল সন্ত্রাসী। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে। এতে লিখন গুলিবিদ্ধ হয়। পরে ধরতে গেলে ধস্তাধস্তিতে এসআই সাফিউল আলম, এএসআই তাজুল ইসলাম ও কনস্টেবল রোকন আহত হন। তখন লিখনের অন্য সঙ্গীরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে ২ রাউন্ড গুলিভর্তি একটি রিভলবার ও ৪২০ পিস ইয়াবাসহ লিখনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে শহরের ৩০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর পঙ্গু হাসপাতালে লিখনের গুলিবিদ্ধ ডান পা হাঁটুর উপর থেকে কেটে ফেলা হয়। সেখানে ১৭ এপ্রিল থেকে ৭ মে পর্যন্ত চিকিৎসা শেষে আদালতে হাজির করা হয়। লিখন নিশ্চিন্তপুর এলাকার তোতা মিয়ার ছেলে।