সকাল ১১:৪৯ মঙ্গলবার ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

‘ট্যুরিজম বোর্ডের কোনো সক্ষমতা নেই’

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 8, 2018 , 4:20 pm
ক্যাটাগরি : জাতীয়,নির্বাচিত
পোস্টটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী নিখিল রঞ্জন রায় বলেন, ‘কেউ কেউ বলেন ট্যুরিজম বোর্ডের সক্ষমতা নেই। আমি এটা স্বীকার করি। এই কারণে- মাত্র ১০ জন কর্মকর্তা একটা ট্যুরিজম বোর্ড পরিচালনা করেন, ফলে জনগণের প্রত্যাশিত ম্যান্ডেট বাস্তবায়ন করা সম্ভব না।’

বেসরকারি বিমান ও পর্যটন খাতে আসন্ন বাজেটে বরাদ্দ প্রসঙ্গে প্রাকবাজেট আলোচনায় তিনি একথা বলেন। মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে এই আলোচনা সভার আয়োজন করে এভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশ (এটিজেএফবি)।

তিনি বলেন, ‘সম্প্রতি কিছু কর্মচারী বা পিয়ন নিয়োগ হয়েছে। কিন্তু এর আগ পর্যন্ত ১০-১২ জন কর্মকর্তাকে পিয়নের কাজগুলোও করা লাগতো। অল্প কিছু জনবল দিয়ে ম্যান্ডেট বাস্তবায়ন সম্ভব না।’

নিখিল রঞ্জন রায় আরো বলেন, ‘অনেক গুরুত্বপূর্ণ ম্যান্ডেট রয়েছে ট্যুরিজম বোর্ডের উপর। এর মধ্যে ডেস্টিনেশন এনালাইসিস করা, প্রডাক্ট ডেভেলপমেন্ট করা, ডিজিটাল ক্যাম্পিং, আইটি সেক্টরসহ অন্যান্য কাজ করা। কিন্তু এই কাজগুলো করার মতো কোনো জনবল নেই।’

তিনি বলেন, ‘একদিকে যেমন জনবল সংকট রয়েছে। অন্যদিকে আমাদের জন্য পর্যপ্ত কোনো বাজেট থাকে না। যার কারণে ট্যুরিজম বোর্ড মানুষের চাহিদা পূরণে ব্যর্থ হচ্ছে।’

তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত মন্ত্রী শাহজাহান কামালকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘ট্যুরিজম বোর্ডের ম্যান্ডেট বা প্রত্যাশাগুলো বাস্তবায়ন করতে হলে জনবলের সক্ষমতা বাড়াতে হবে।’

অনুষ্ঠানে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের প্রধান নির্বাহী ইমরান আসিফ বলেন, ‘বাংলাদেশ বিমানসহ দেশীয় প্রাইভেট এয়ারলাইন্সগুলোর ব্যবসায় সবচেয়ে বড় বাধা হচ্ছে জেট ফুয়েলের দাম বৃদ্ধি। আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের জন্য ফুয়েল যে দাম দিয়ে কিনতে হয়, একই ফুয়েল অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটের জন্য তার চেয়ে বেশি দামে কিনতে হয়। অথচ এয়ারক্রাফটের মাধ্যমে দেশের অভ্যন্তরে মানুষের আধুনিক সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি, আর আমাদের কাছ থেকে বেশি দাম রাখা হচ্ছে। এটা স্ব-বিরোধী।’

তিনি আরো বলেন, ‘আন্তর্জাতিক এয়ারক্রাফট যারা বাংলাদেশে ফ্লাইট পরিচালনা করে, তারা যে দামে ফুয়েল কিনে, তাদের থেকে বর্তমানে ২৫ টাকা বেশি দিয়ে প্রতি লিটার ফুয়েল কিনতে হয়। তাহলে মার্কেটে আমরা কিভাবে অন্যদের সাথে প্রতিযোগিতা করবো? যাত্রী কিন্তু বাংলাদেশি এয়ারক্রাফট দেখে বেশি টাকা দিয়ে আমাদের ফ্লাইটে উঠবে না।’

নভোএয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মফিজুর রহমান বলেন, ‘আমাদের আইনের ক্ষেত্রে রয়েছে এয়ারক্রাফটের যন্ত্রাংশ ক্রয়ে ভ্যাট-ট্যাক্স দিতে হবে না। অথচ আমাদের কাছ থেকে এয়ারক্রাফটের প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশের জন্য কাস্টমস হাউজ ভ্যাট-ট্যাক্স রাখে। এটা বন্ধ করার ব্যবস্থা করতে হবে।’

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের শাকিল মেরাজ বলেন, ‘বিমানের বহরকে আধুনিকায়নের জন্য ১০টি বোয়িং ব্রান্ডিং উড়োজাহাজ সংগ্রহ করছি। যার ছয়টি ইতোমধ্যে সংগ্রহ করা হয়েছে। এর সবগুলোই ঋণ করে কেনা হয়েছে এবং বিমান বাংলাদেশ তাদের নিজেদের আয়ের টাকা দিয়ে ৫ হাজার ৩৬৫ কোটি টাকা ঋণ পরিশোধ করেছে। আমাদেরকে আরো ৪ হাজার ৪৯৮ কোটি টাকা ঋণ পরিশোধ করতে হবে। এবছর ও আগামী বছর ৪টি উড়োজাহাজ বহরে যুক্ত হলে তখন ঋণের পরিমাণ দাঁড়াবে প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা। যা আমাদের মূলধন ২ হাজার কোটি টাকার চেয়ে অনেক বেশি।’

এসময় তিনি বলেন, ‘আমাদের মূলধনের চেয়ে ঋণের পরিমাণ অনেক বেশি। এ অবস্থা থেকে উত্তরণে সরকারের কাছে মূলধন বাড়ানোর দাবি জানাচ্ছি।’

বেসরকারি বিমান ও পর্যটন খাত নিয়ে প্রাক বাজেট আলোচনায় প্রধান অতিথি ছিলেন বেসরকারি বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল। তিনি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সেবার মান নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ‘বিমান থেকে নামার পর লাগেজ পেতে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হয়, কিন্তু কেন? আমি মন্ত্রী, আমি নিজেই বিমানের সেবায় সন্তুষ্ট না। এর বিরুদ্ধে কথা বলি, তাহলে অন্যের কথা কী বলবো।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাকে দুজন মন্ত্রী বলেছেন- লাগেজ যদি দ্রুত দিতে পারেন তাহলে সবাই আপনাদের কথা মনে রাখবে। মরক্কোতে ২০ মিনিটের মধ্যে লাগেজ দিয়েছে। তাহলে আমরা কেন পারবো না। আমাদের কী সমস্যা, কী লাগবে? এ বিষয়ে বিমানের পরিচালক ফ্লাইট অপারেশনকে ডেকে দ্রুত এ সমস্যার সমাধানের কথা বলা হয়েছে। তিনি আমার কাছে দুই মাসের সময় চেয়েছেন।’

এভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশের সভাপতি নাদিরা কিরনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ফারুক খান।

এছাড়া টোয়াবের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফরিদুল হক, বিটিবি’র গভর্নিং বোর্ড সদস্য জামিউল আহমেদ, আটাবের নূরুল আলম শাহিন, টোয়াবের পরিচালক তাসলিম আমিন শোভন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে টোয়াবের পক্ষ থেকে পর্যটন উন্নয়ন : আমাদের জাতীয় বাজেট ও প্রত্যাশার ওপর একটি কী-নোট পাঠ করেন সংগঠনটির উপদেষ্টা মাসুদ হোসেন।