রাত ২:৪৩ বুধবার ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

মুড়িতে থাকা ব্যালটে সিল মারল কে?

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 7, 2018 , 4:12 pm
ক্যাটাগরি : বিচিত্র সংবাদ
পোস্টটি শেয়ার করুন

জালভোট প্রদান, কেন্দ্র দখল ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে নরসিংদীর নুরালাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এসব অভিযোগে দুপুরেই নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন বিএনপির প্রার্থী সদ্যবিদায়ী চেয়ারম্যান।

সোমবার সকাল ৮টায় শুরু হয়ে টানা ভোটগ্রহণ চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন খাদেমুল ইসলাম। বিএনপির প্রার্থী ছিলেন সদ্য বিদায়ী চেয়ারম্যান আবু সালেহ চৌধুরী।

এছাড়াও এই নির্বাচনে সাধারণ সদস্য পদে ৩১ জন ও সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে সাত প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

তবে সকাল থেকেই ৯টি ওয়ার্ডের সবক’টি কেন্দ্রে গণহারে জালভোট প্রদান, বহিরাগত সন্ত্রাসী কর্তৃক কেন্দ্র দখলসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে দুপুরে বিএনপির প্রার্থী আবু সালেহ চৌধুরী ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

এসময় তিনি অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় প্রভাবশালী মহল তাদের অপশক্তি ব্যবহার করে এ নির্বাচনের মাঠ দখলে নিয়েছে।

সরেজমিনে নূরালাপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, পুলিশ ও প্রশাসনের কর্মীদের সামনেই বহিরাগত লোকজন ভোটকেন্দ্রে অবস্থান করছেন। তারা ব্যালট পেপার সংগ্রহ করে নৌকা প্রতীকে সিল মারছেন।

কয়েকজন ভোটার অভিযোগ করেছেন, সকাল ৮টার আগেই অধিকাংশ ব্যালট পেপারে সিল মারা হয়ে গিয়েছিল।

মুড়িতে থাকা ব্যালট পেপারে আগে থেকেই সিল মারা আছে এমন একটি ব্যালট দেখতে পেয়ে প্রিজাইডিং কর্মকর্তার কাছে জানতে চাইলে তিনি তার অসহায়ত্ব প্রকাশ করেন।

গদাইচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, দুই সাধারণ সদস্য পদপ্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও হামলার ঘটনা ঘটে। ফলে প্রায় ৩০ মিনিট স্থগিতের পর পুনরায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

সকাল ১০টায় রাইনাদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় বহিরাগত লোকজন কেন্দ্রের ভেতরে ব্যালট পেপারে নৌকা প্রতীকে সিল মারছেন। পরে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে জানালে তিনি সিল মারা ভোট বাতিল করেন।

কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মাইনুল ইসলাম বলেন, বহিরাগত লোকজন এসে কিছু ব্যালট পেপারে সিল মেরে দেয়। পরে তা বাতিল করে দেই।

তবে এসব অভিযোগ পুরোপুরি সত্য নয় দাবি করে রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল আজিজ বলেন, কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া সব কেন্দ্রেই সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে।