সকাল ৯:১৪ বুধবার ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

উত্তপ্ত এলাকা, ঘটনা কি?

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : August 29, 2018 , 11:42 am
ক্যাটাগরি : আর্ন্তজাতিক
পোস্টটি শেয়ার করুন

উদয়পুর তুমি কার? দীর্ঘদিন ধরে সীমান্ত নিয়ে লড়াই উদয়পুর সমুদ্র সৈকতে। এই সৈকত কার, পশ্চিমবাংলার না ওড়িশার- সেই নিয়েই বিতর্ক। দীর্ঘ কয়েক বছর ধরেই ঝামেলা চলছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশা পুলিশ ও প্রশাসনের মধ্যে। মঙ্গলবার তা অন্য মাত্রা নিল।

এদিন সকালে ওড়িশার পুলিশ বিশাল বাহিনী নিয়ে এসে উদয়পুর এলাকায় রাস্তার পাশে থাকা পশ্চিমবঙ্গের একটি সরকারি ফলককে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে যথারীতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওড়িশা-পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তের উদয়পুর।

খবর পেয়ে দিঘার প্রশাসন ও পুলিশ সেখানে গিয়ে বাধা দিতে গেলে দু’পক্ষের মধ্যে শুরু হয় ধাক্কাধাক্কি। ওড়িশার পুলিশ ফোর্স বেশি থাকায় পিছু হটতে হয় এই রাজ্যের পুলিশকে।

তবে এদিনই প্রথম নয়, মঙ্গলবার এই ঘটনার আগেও বেশ কয়েকবার একই ভাবে গায়ের জোরে উদয়পুরের রাস্তা ও সমুদ্র সৈকত নিজেদের দখলে রাখার চেষ্টা করে ওড়িশা প্রশাসন। তাদের দাবি, এই এলাকা ওড়িশার অন্তর্গত।

এই নিয়ে একাধিক বার জেলা প্রশাসন স্তরে বৈঠক হয়েছেস কিন্তু সমস্যা মেটেনি। এদিন অবশ্য একেবারে তৈরি হয়ে আসে ওড়িশা প্রশাসন। তারা কোনও মূল্যেই বর্ডার এলাকার দখল ছাড়তে রাজি নয় বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে।

দিঘায় বেড়াতে আসা পর্যটকরাই মূলত উদয়পুরে বেড়াতে যান। আর সেখান থেকেই মোটা টাকা রোজগার হয় ওড়িশা সরকারের। তাই এই সমুদ্র সৈকতের দাবি ছাড়তে রাজি নয় তারা।

উদয়পুরের পরিস্থিতি নিয়ে পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক রশ্মি কমলের সাথে যোগাযোগ করার জন্য ফোন করলে তিনি ফোন তোলেননি। এই সীমান্ত এলাকা নিয়ে দীর্ঘদিনের সমস্যা কবে মিটবে, তা নিয়ে চিন্তিত স্থানীয় বাসিন্দারা।