সকাল ৯:০৯ বুধবার ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

ভালোবাসার সম্পর্ক, বাবা-মা মানছেন না?

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : August 28, 2018 , 5:06 am
ক্যাটাগরি : গনমাধ্যম
পোস্টটি শেয়ার করুন

বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় দুজনে প্রেম করেছেন চুটিয়ে। এখন বিয়ে করবেন। ভালোবাসার মানুষটির কথা বাবা-মাকে জানিয়েছেন। কিন্তু কোন ভাবেই বাবা-মা মেনে নিতে চাইছেন না, আপনাদের ভালোবাসার সম্পর্ক। বাবা-মা যেন ভালোবাসার সম্পর্ক মেনে নেন, সেজন্য আপনাদের যা করতে হবে

বোঝার চেষ্টা করুন: জীবনে বাবা-মায়ের ভূমিকা বোঝার চেষ্টা করুন। আপনার ভবিষ্যতের কথা ভেবেই তারা চিন্তিত। তাই মাথা গরম করবেন না। তাদের দিক থেকে ব্যাপারটা বোঝার চেষ্টা করুন।

ভালো-মন্দ: অনেক সময়ই বাবা-মায়েরা অভিজ্ঞতার কারণে অনেক কিছু আগে থেকে আঁচ করতে পারেন, যা আমরা বুঝতে পারি না। তারা আপনাকে বড় করেছেন, আপনার চরিত্রও জানেন। জোর করে কোনও সম্পর্কে গিয়ে সমস্যা ডেকে এনেছেন অনেকেই। তাই বাবা-মা মানতে না চাইলে নিজেও এক বার খতিয়ে দেখুন। যে কারণে তাদের আপত্তি সেই বিষয় নিজে অ্যাডজাস্ট পারবেন তো?

খোলাখুলি কথা বলুন: এই পরিস্থিতিতে অনেক সময়ই ঝগড়া হয়ে কথাবার্তা বন্ধ হয়ে যায়। এতে সমস্যা আরও জটিল হয়। বাবা-মায়ের সঙ্গে সরাসরি কথা বলুন। তাদের কথা শুনুন, নিজের কথা বলে বোঝানোর চেষ্টা করুন।

প্রশংসা: বাবা-মায়ের সামনে প্রেমিক বা প্রেমিকার প্রশংসা করুন। চাকরির পদোন্নতি, অন্যদের সাহায্য করার ঘটনার কথা বলুন। চরিত্রের ভাল দিক তাদের সামনে তুলে ধরুন।

কম্প্রোমাইজ: বাবা-মাকে রাজি করাতে গেলে আপনাকেও কিছু বিষয় মানিয়ে নিতে হবে। বাবা-মা যদি আপনার বেশি রাত পর্যন্ত বাড়ির বাইরে থাকা পছন্দ না করেন তা হলে তাড়াতাড়ি বাড়ি ফেরার চেষ্টা করুন। তারা যদি চান, আপনি ছুটির দিন বাড়িতে থেকে তাদের সময় দিন তবে তাই করুন। এতে সম্পর্ক সহজ হবে।

অভিযোগ ও ঝগড়া: সঙ্গীর সঙ্গে ঝগড়া হলে বন্ধুদের কাছে অভিযোগ জানান। কিন্তু কখনই বাবা-মায়ের সামনে অভিযোগ জানাবেন না। তাদের সামনে ফোনে ঝগড়া করা নিয়েও সতর্ক থাকুন। এতে কিন্তু তারা অনুমতি দেওয়া নিয়ে আরও বেঁকে বসবেন।

নিজের ভাললাগা প্রকাশ করুন: অনেক সময় অভিভাবকেরা আমাদের বুঝে উঠতে পারেন না। আপনি কেন এই সঙ্গীকে বেছে নিয়েছেন, ঠিক কী পছন্দ করছেন, কী চান জীবনে তা বাবা-মাকে খুলে বলুন। বোঝানোর চেষ্টা করুন।

সাহায্য: এই পরিস্থিতিতে অনেক সময়ই বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে আমরা সমস্যার সমাধান খুঁজে বের করতে পারি না। বন্ধু, কাজিন বা কোনও কাছের আত্মীয়ের সাহায্য নিন। তাদের পরামর্শ নিন।

‌সম্মান: বাবা-মা ও আপনি আলাদা প্রজন্মের মানুষ। আপনাদের পছন্দ না মিলতে পারে। কিন্তু তার জন্য কখনই তাদের ওপর অভিমান বা অপমান করবেন না। মনে রাখবেন, আপনার সবচেয়ে কাছের মানুষ কিন্তু তারাই। তাদের কষ্ট দিয়ে আপনি কখনই খুশি হতে পারবেন না।

সময়: যে সমস্যার সমাধান করা যায় না, অনেক ক্ষেত্রে তা করে দেয় সময়। তাই কিছুটা সময় দিন।

যদি সম্পর্ক আরও গভীর হয় তা হলে বাবা-মা নিজেরাই বুঝবেন আপনারা একে অপরের জন্য উপযুক্ত।