ভোর ৫:১৩ মঙ্গলবার ২১শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

বেপরোয়া বাসের চাপায় সিএনজি অটোরিকশার ছয় যাত্রী নিহত

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : আগস্ট ২৪, ২০১৮ , ৩:৫৫ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : চট্টগ্রাম,দেশজুড়ে
পোস্টটি শেয়ার করুন

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীতে একটি বেপরোয়া বাসের চাপায় সিএনজি অটোরিকশার ছয় যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহতা দুইজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে মহাসড়কের ফেনী বাইপাস অংশের লেমুয়া এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ফেনী পৌরসভার ১৫নং ওয়ার্ড মধুপুর এলাকার আবদুল জব্বারের ছেলে সিএনজি চালক রুহুল আমিন, যাত্রী শাহাদাত হোসেন, বেলাল হোসেন, নাসির উদ্দিন, সালমা আক্তার, নাসিমা আক্তার। আহত দুজনের পরিচয় জানা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস লেমুয়া এলাকায় অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুইজন মারা যান। ছয়জনকে সদরের ফেনী আধুনিক হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে আরও চারজনের মৃত্যু হয়।

ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালের আরএমও ঢাকাটাইমসকে জানান, ছয়জনের মধ্যে চারজন মারা গেছেন। আহত দুইজনের অবস্থা গুরুতর। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মহিপাল হাইওয়ে পুলিশের ওসি আব্দুল আওয়াল এ তথ্য নিশ্চিত করে ঢাকাটাইমসকে বলেন, ঘাতক বাসটি আটক করা হয়েছে। তবে চালক ও সহকারীরা পালিয়ে গেছেন।

এদিকে হতাহতদের দেখতে ছুটে যান জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান। তিনি আধুনিক সদর হাসপাতালে গিয়ে হতাহতদের খোঁজখবর নেন।

এ সময় নিহতদের দাফন-কাফন ও আহতদের চিকিৎসার্থে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহত প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে ও আহত প্রত্যেকের জন্য ৫ হাজার টাকা করে দেয়া হয়। সিভিল সার্জনের পক্ষ থেকেও আহত দু’জনের জন্য পাঁচ হাজার করে ১০ হাজার টাকা দেয়া হয়।

(ঢাকাটাইমস