সকাল ৭:৩১ বুধবার ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

লক্ষ্মীপুরে পাওনা টাকা চাওয়ায় এক দোকানিকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ”

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : August 22, 2018 , 1:02 am
ক্যাটাগরি : অপরাধ ও দুর্নীতি
পোস্টটি শেয়ার করুন

লক্ষ্মীপুরে পাওনা টাকা চাওয়ায় এক দোকানিকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছে ক্রেতার বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার বিকালে সদর উপজেলার উত্তর হামছাদী ইউনিয়নের মুকতারামপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নবী উল্যা (৩৬) একই এলাকার মৃত নুরুজ্জামানের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সম্প্রতি নবী উল্যার মুদি দোকান থেকে একই গ্রামের শহিদ উল্যার ছেলে শাহ আলম বাকিতে পণ্য কিনেন।

এদিন বিকালে আবার তিনি ওই দোকানে বাকিতে পণ্য কিনতে আসেন।

এসময় নবী উল্যা পূর্বের পাওনা টাকা চাওয়ায় শাহ আলম তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন।

এসময় তাদের দুজনের মধ্যে হাতাহাতি হয়। একপর্যায়ে নবী উল্যার বুকে ঘুষি লাগলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

এসময় দোকানে থাকা তার স্ত্রী এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করা হয়।

পরে স্থানীয় লোকজন নবী উল্যাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের স্ত্রী রোকেয়া বেগম বলেন, পাওনা টাকা চাওয়ায় আমার স্বামীকে মারধর করা হয়। একপর্যায়ে তার মৃত্যু হয়।

এসময় আমাকেও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ করেন তিনি।

উত্তর হামছাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমরান হোসেন নান্নু যুগান্তরকে বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। দ্রুত হত্যাকারীকে গ্রেফতার করার জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ওসি লোকমান হোসেন যুগান্তরকে বলেন, মরহেদের ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত চলছে।