বিকাল ৩:১১ রবিবার ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

বিপিএলের এবারের আসরের জন্য যে চার ক্রিকেটারকে ধরে রাখছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : August 20, 2018 , 9:22 am
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

আগামী ৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় টুনামেন্ট বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। গতবারের মতো এবারের টুনামেন্টে দেখা যাবে মোট সাতটি দল। বিপিএলের অন্যতম ফেভারিট দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবারে অাসরে থাকছে।

২০১৫ সালে সর্বপ্রথম বিপিএলে অংশগ্রহণ করে এই দলটি। মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বে প্রথম আসরে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি ঘরে তোলে কুমিল্লা। গত মৌসুমেও তামিম ইকবালের নেতৃত্বে তৃতীয় স্থান পেয়েছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। বিপিএল এর সবচেয়ে তারকাখচিত দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দেশ এবং দেশের বাইরে একঝাঁক তারকা ক্রিকেটার রয়েছে তাদের দলে।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল সহ ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, আল আমিন হোসেন, লিটন দাস, আরাফাত সানি। এছাড়াও বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে রয়েছে ফখর জামান, সামিউল, ডুয়েন ব্রাবো, মোহেব মালেক, জস বাটলার, হাসান অালী, আফগানিস্তানে দুই স্পিনার রশিদ খান এবং মুজিবুর রহমান।

তবে এদের মধ্য থেকে মাত্র ৪ জন ক্রিকেটার দলে রাখতে পারবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। গতবছর লিটন কুমার, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন এবং ইমরুল কায়েসকে ধরে রেখেছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। তবে এবছর কোন চার ক্রিকেটারকে ধরে রাখবে এখনো নিশ্চিত করেনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

তবে ধারণা করা হচ্ছে দুই দেশী এবং দুই বিদেশি ক্রিকেটার দলে রাখতে পারে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দেশি ক্রিকেটারের মধ্যে জাতীয় দলের বর্তমান দুই ওপেনার তামিম ইকবাল এবং লিটন কুমার কে ধরে রাখায় সম্ভাবনাই বেশি। তবে এ তালিকায় থাকতে পারে ইমরুল কায়েস, সাইফুদ্দিন এবং আলা অামিনের নাম।

গতবছরের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সেরর হয়ে দারুন একটি মৌসুম পার করেছেন ওপেনার তামিম ইকবাল। বিপিএলে চতুর্থ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন তিনি। শুধু তাই নয় বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন তামিম ইকবাল। ১০ ইনিংসে ৩৭ গড়ে ৩৩২ রান করেছিলেন তামিম ইকবাল।

১৩৩ স্ট্রাইক রেটে পুরো টুর্ণামেন্টে ৪৫ টি চার এবং ৭ টি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন তামিম। কোন সেঞ্চুরির দেখা না পেলেও দুটি অর্ধশতক করেছিলেন তামিম। দ্বিতীয় বাংলাদেশী ক্রিকেটার হিসেবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স রেখে দিতে পারে লিটন কুমার দাসকে। গত আসরে প্রথম দিকে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেও শেষের দিকে দারুণভাবে জ্বলে উঠেছিলেন তিনি।

১২ ইনিংসে একটি অর্ধশতক সহ ১২৫ স্ট্রাইক রেট ২৬১ রান সংগ্রহ করেছিলেন তিনি। তবে লিটন কুমার দাসকে গত বছরে পারফর্মেন্স নয় বর্তমান সময়ের পারফরমেন্সের উপর ভিত্তি করে দলে রেখে দিতে পারে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। এছাড়াও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স নজর থাকবে ইমরুল কায়েস এবং অলরাউন্ডার উদ্দিন এর উপর।

গত মৌসুমে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স হয়ে প্রতিটি ম্যাচ খেলেছিলেন ইমরুল কায়েস। শুধু তাই নয় প্রথম চারটি ম্যাচে অধিনায়কত্ব করেছিলেন জাতীয় দলের এই ওপেনার। ১৪ ইনিংসে ২৯৯ রান করেছিলেন ইমরুল কায়েস। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের নজরে থাকবে মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের উপরও।

গত বছর এই ক্রিকেটারকে ধরে রেখেছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। গত মৌসুমে ১৩ ইনিংসে ৭.৭৯ ইকনমিক রেটে ১৬ টি উইকেট লাভ করেছিলেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। শুধু তাই নয় বর্তমান সময়ে দারুণ ফর্মে রয়েছেন বাংলাদেশ দলের এই তরুণ তুর্কি। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৯ উইকেট লাভ করেছেন তিনি।

আর বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে ধরে রাখতে পারে রাশিদ খান এবং মুজিবুর রহমানকে। এছাড়াও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের নজর থাকতে পারে হাসান আলী উপর। কারণ গত মৌসুমে মাত্র নয় ম্যাচে ১৬ উইকেট নিয়েছিলেন পাকিস্তানের এই তরুণ পেসার।

যদিও জানুয়ারিতে পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক সিরিজ রয়েছে। তবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের নজর থাকবে আফগানিস্তানে দুই স্পিনার রশিদ খান এবং মুজিবুর রহমানের উপর। বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বের ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক ক্রিকেট লিগের জনপ্রিয় এই দুই ক্রিকেটার।

বর্তমানে তারা বিশ্বের প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক ক্রিকেট লিগে খেলে থাকেন। গত মৌসুমে রাশিদ খান খেলেছিলেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এর হয়ে। কিন্তু মাঝপথেই বিপিএল ছেড়ে দেশে ফিরে যেতে হয়েছিল তাকে। গত মৌসুমে সাত ম্যাচে ৪.৪০ ইকোনমিক রেটে ছয়টি উইকেট লাভ করেছিলেন আফগানিস্তানের এই তরুণ তুর্কি।

রাশিদ খানের এর পরিবর্তে দলে ডাক পেয়েছিলেন আরেক স্পিনার মুজিবুর রহমান। তবে তখন তিনি ক্রিকেট বিশ্বের তেমন জনপ্রিয় ছিলেন না। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের জার্সিতে মাত্র একটি ইনিংসে খেলেছিলেন মুজিবুর রহমান আর সেই ম্যাচে ৪ ওভারে মাত্র ১৭ রান দিয়েছিলেন তিনি। তবে কোনো উইকেট লাভ করতে পারেননি তিনি।

এবারের মৌসুম জানুয়ারিতে হওয়ার কারণে অনেক বিদেশি ক্রিকেটার কে দলে পাবেন না বিপিএলের দল গুলো। কারণ ওই সময় চলতে থাকবে একাধিক দলের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ।