রাত ১১:২৫ শুক্রবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

বিষয়টি স্বাভাবিক ভাবে নিতে পারেননি ফারিয়া

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : August 20, 2018 , 7:37 am
ক্যাটাগরি : বিনোদন
পোস্টটি শেয়ার করুন

শবনম ফারিয়া একজন অভিনেত্রী। প্রথম মিউজিক ভিডিও অনেক জনপ্রিয়তার পর আর ও পথে বাড়াননি। কিন্তু সম্প্রতি হাসান রেজাউল নামের একজন পরিচালক ফারিয়া অভিনীত নাটকের ফুটেজ দিয়ে ওই নাটকের গান একটি মিউজিক লেবেলে প্রকাশ করেন। মিউজিক ভিডিওতে নির্মাতা কোনো নাটকের কথা উল্লেখ করেননি। যেটা থেকে শ্রোতারা বিভ্রান্ত হবেন এই ভেবে যে এটি একটি স্বতন্ত্র মিউজিক ভিডিও। এবং নির্মাতা হাসান রেজাউল মিউজিক ভিডিওকে স্বতন্ত্র হিসেবেই পরিচিত করার চেষ্টা করেছেন। এরপর বিষয়টি স্বাভাবিক ভাবে নিতে পারেননি ফারিয়া।

শবনম ফারিয়া নিজের ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন, একটি নতুন অনলাইন মিউজিক চ্যানেল এর ব্যানারে হাসান রেজাউল এর পরিচালনায় যে মিউজিক ভিডিও আজ ইউটিউবে এসেছে আমি এর সম্পর্কে কিছুই জানতাম না, আমাদের একজন সাংবাদিক ভাই আমার সাথে যোগাযোগ করার পর আমি জানতে পারি যে আমাদের নাটকের জন্য শুট করা কিছু অংশ দিয়ে মিউজিক ভিডিও বানিয়ে তা ইউটিউবে ছাড়া হচ্ছে!

তিনি বলেন, যেহেতু পরিচালকের সাথে আমার পেশাগত কারণে সুসম্পর্ক ছিল, আমি তাকে অনুরোধ করি গানটি যেন নাটক এনএয়ার হওয়ার পর ‘নাটকের গান’ বলে ইউটিউবে আলাদা করে পাবলিশ করে, তার আগে না কিন্তু তারা তা অগ্রাহ্য করে আজই ভিডিওটির ইউটিউবে পাবলিশ করে! এই অবস্থায় আমার কি করণীয়?

নির্মাতা হাসান রেজাউল বিষয়টির উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। তিনি ফারিয়ার সেই পোস্টের নিচেই তাঁকে আপু সম্বোধন করে লিখেছেন, ‘আপনার স্টেটাস দেখে আমি বিস্মিত হলাম! আমি মনে করি আপনি ও নাঈম ভাই অনেক আপন এবং গানের ভিজুয়াল অনেক সুন্দর হয়েছে বলে- গানটি একটা মিউজিক স্টেশান থেকে ছাড়ার পরিকল্পনা করি। উদ্দেশ্য ২ টি, ১. এতো মিস্টি একটা গান শুধুমাত্র নাটকেই থাকবে এটা কেমন কথা। সবাই শুনবে এবং ভালো লাগাটা শেয়ার করবে। ২. এই নাটক টি বানাতে প্রোডিউসারের বেশ কিছু খরচ হয়। যার দায় একমাত্র পরিচালকের উপর বর্তায়। সেই চিন্তা করে শুধুমাত্র সামান্য বিনিময়ে একটা স্টেশানে গানটা দেয়া। কারণ লস প্রজেক্ট করে করে অনেক প্রোডিউসার আমরা হারিয়েছি। আমার নীতিগত জায়গা ঠিক রেখেই এই কাজটি করতে চেয়েছি।’

তিনি বলেন, এখন কথা হলো আপনার স্টেটাস নিয়ে। আপু আমি ছোট মানুষ। আমার ৩ টা প্রোডাকশন এ কাজ করেছেন। আশা করি এতোটুকু ভালো সম্পর্ক আমাদের ছিলো এবং থাকবে। সে ভেবেই আপনার কাছ থেকে আলাদা করে কোন ছাড়পত্র আমি নেই নি। তারপরেও আপনি সাংবাদিকের কাছ থেকে জানার পর আপনার সাথে কথা হয় আমার। আমি আপনাকে এতো অনুনয় বিনয় করার পরও এখন আপনার স্টেটাস দেখে খুব অবাক হয়েছি!

হাসান রেজাউল বলেন, আপনাকে এই গান আপ করার আগে অনেকবার ফোন এবং এসএমএস দিয়েছি বিষয়টি নিয়ে কথা বলার জন্য। আপনার কোন রিপ্লাই পাইনি। আপনাকে আমি বলেছিলাম-জাগো মিউজিক নামে নতুন একটি স্টেশান শুরু হতে যাচ্ছে। যার ফলে আমার নির্মাণের এই নাটকের গানটি দিয়ে তারা শুরু করবে। এই ভালো লাগাটা শিল্পের জায়গা থেকে আমার জন্য অনেক। এও বলেছি আপনি যদি চান তাহলে- আমি আপনাকে আমার সাধ্যমত একটা সম্মানী দেবো। আপনি শুধু গানটি ছাড়ার অনুমোদন দেন।

এই নির্মাতা বলেন, তাহলে এই স্টেটাস কেন আপু? আপনি অভিনেত্রী, আপনার তো মানুষ চেনায় ভুল হওয়ার কথা না। আর আমার মতো ছোট মানুষকে নিয়ে স্টেটাস তাও আবার এতোগুলো কাছের মানুষদের ট্যাগ করে? আপু ইন্ড্রাস্ট্রিতে কাজ করতে আসছি একটা ভাবনা নিয়ে। যেখানে ভালো লাগার চাইতে বেশি শিল্প এবং দর্শন ধারণ করছি এই হৃদ্যে। আমি লজ্জিত। আমার কি করণীয় জানাবেন প্লিজ। ভালোবাসা নিরন্তর আপু।

অবশ্য এই উত্তরকে ফারিয়া সহজভাবে নেননি। তিনিও এটার পাল্টা উত্তর দিয়েছেন। ফারিয়া বলছেন, ভাই আপনি ঘটনাটি যতটা নিস্পাপ ভাষায় বর্ণনা দিলেন, ঘটনা টা মোটেও তেমন ছিল না। আপনার যেমন মনে হয়েছে আপনি গ্রামি জয় করার মতো ভিডিও বানিয়েছেন, আমার তা মনে হয়নি, তাই আমার যে এর সাথে সম্পৃক্ততা নেই তা জানানো প্রয়োজন ছিল। এবং এই স্টেটাস আপনার এই কমেন্ট দেখেও আমি অবাক হয়েছি, আমি এখানে আপনাকে ছোট করে কিছু বলিনি, কিংবা বলতে চাইনি, আমি এই সমস্যার প্রতিকার সম্পর্কে আমার কাছের যারা আছে তাদের পরামর্শ জানতে চেয়েছি , কিন্তু যেহেতু আপনি চাইলেও কল করে কথা গুলো বলতে পারতেন তা না করে এখানেই লিখেছেন আমার মনে হয় আমারও কিছু পয়েন্ট এখানে লেখা উচিত।

১. আমার সাথে আমার ভাল সম্পর্ক থাকায়ই আমি নিজ থেকে আপনাকে কল করে জানতে চেয়েছি, আপনি আর্টিস্ট হিসেবে নিজ থেকে আমাকে জানানোর প্রয়োজনও মনে করেননি।

২. আমি ব্যক্তিগত ভাবে মিউজিক ভিডিও করি না, প্রত্ত্যেকটা আর্টিস্টের একটা নিজেস্ব যায়গা কিংবা ইমেজ থাকে, এবং আমার মনে হয়েছে আমার সাথে এই বিষয়টা যায় না! আর তা না হলে আমার প্রথম মিউজিক ভিডিওটা অনেক জনপ্রিয় হওয়া সত্বেও আমি আর কখনো মিউজিক ভিডিওগেম কাজ করিনি।

৩. আপনি আমাকে যত বার ফোন করেছেন আমি ধরেছি। আপনি এখানে কিভাবে লিখলেন যে, আমার কোন রিপ্লাই পান নি? আপনি চাইলে আমি কল লিস্ট বের করে আপনাকে দেখাতে পারি। ঈদের আগে আমার টানা শুটিং এর ডিরেক্টরই বা আমাকে কেন অনুমতি দিবে আপনার সাথে এতো কথা বলার যেখানে আপনাকে আমি অলরেডি রিকোয়েস্ট করেছি গান টা নাটক প্রচার হওয়ার আগে ইউটিউবে মিউজিক ভিডিও আকারে না ছাড়তে!!!

৪. আপনি যদি বলেই থাকেন যে আপনি আমাকে সাধ্য মত সন্মানি দেবেন তাহলে আমি কেন এই স্টেটাস লিখবো? আপনি তো আমার কাছের মানুষদের মধ্যেই একজন হিসেবে পরিচিত নয়তো আপনার সাথে আমার তিনটি কাজ করা হতো না! কিংবা যেই নাটক নিয়ে এতো কথা হচ্ছে, সেই নাটকের সন্মানি নেয়ার সময় আমি নিজ থেকে বলেছি আমাকে সন্মানি ৫ হাজার কম দেন, আপনার অনেক খরচ হয়ে গেছে!!! এটা কি আপনি অস্বিকার করবেন? আমি শুধু মাত্র টাকার কাঙ্গাল হলে তো এই ঘটনা ঘটার কথা না।

৫. আপনি লস করে প্রডিউসার হাড়ানোর যে কথা বললেন আমি তার সাথে ১০০ ভাগ সহমত প্রকাশ করি, কিন্তু আমার লস এর কথাটা একবারও আপনার মাথায় আসলো না? নাকি অভিনেতা অভনেত্রীরাও অভাবে অভিনয় ছাড়ে আপনি তা জানেন না।

৫. রিকোয়েস্টের পরেও আপনি মিউজিক ভিডিও শিরনামেই ভিওটি পোস্ট করেছেন, মেনশানও করিননি যে এইটা নাটকের গান!

ফারিয়া বলেন, বললে আনেক কথা অনেক পয়েন্টই আনা যায়, কিন্তু পুরো ঘটনায় আমি খুবই অসম্মানিত বোধ করেছি! এবং এই স্টেটাস দেয়ার অন্যতম আরেকটি কারণ যাতে এই ঘটনা আর না ঘটে ! শিল্পীদের ঠকিয়ে যেন কেউ নিজস্ব বেনিফিট হাসিল না করে! আপনি নিজেও একজন থিয়েটার কর্মী আপনার এই বিষয়ে আরো সচেতন থাকা আবশ্যক ছিল।