রাত ১:৫৯ বুধবার ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে কফিন মিছিল করেছেন শিক্ষার্থীরা।

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 5, 2018 , 4:19 pm
ক্যাটাগরি : চাকরি
পোস্টটি শেয়ার করুন

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে কফিন মিছিল করেছেন শিক্ষার্থীরা।

শনিবার বেলা ১০টায় রাজধানীর শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য হয়ে ফের শাহবাগে গিয়ে অবস্থান কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মিছিলটি শেষ হয়।

‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ’ মশাল মিছিলের আয়োজন করে। আগামী ৩১শে মে এর মধ্যে সরকার দাবিটি মেনে না নিলে সারা দেশে অবরোধের মতো কঠোর কর্মসূচি পালনের হুশিয়ারি দেন তারা।

এর

আগে গত ২৭ এপ্রিলও একই দাবিতে কফিন মিছিল করেছিলেন তারা। এছাড়া শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় আন্দোলনকারীরা মশাল মিছিল করে। এ সময় রশিতে আগুন লাগিয়ে ৩০ লিখে পুড়িয়ে ফেলা হয়। এরপর মশাল জ্বালিয়ে শাহবাগ থেকে দোয়েল চত্বর হয়ে পুনরায় শাহবাগে এসে মিছিলটি শেষ হয়। সেখান থেকে কফিন মিছিল কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হয়েছিল।

কফিন মিছিল শেষে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের আহ্বায়ক সঞ্জয় দাস বলেন, প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ করলে দেশে মেধা রক্ষা হবে। নচেৎ মেধাবীরা তাদের যোগ্যতা প্রমাণ থেকে বঞ্চিত হবে। বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু যখন ৪৫ বছর ছিল তখন চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ছিল ২৭ বছর। যখন গড় আয়ু ৫০ ছাড়াল তখন প্রবেশের বয়সসীমা হলো ৩০ বছর। বর্তমানে বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু ৭২ বছর হলে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা এখনও অপরিবর্তিতই রয়ে গেছে। তাই শিগগিরই চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ বছর করা হোক।

পরিষদের আহ্বায়ক আরও বলেন, সরকারি নিয়ম অনুসরণ করার ফলে বেসরকারি ব্যাংকসহ বহুজাতিক কোম্পানিগুলোও অভিজ্ঞতা ছাড়া ৩০ বছরের ঊর্ধ্বে জনবল নিয়োগ দেয় না। যার ফলে বেসরকারি ক্ষেত্রেও কর্মের সুযোগ সংকুচিত হয়ে যাচ্ছে। উন্নত বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা অবশ্যই ৩৫ বছর করা প্রয়োজন। কারণ উন্নত বিশ্বকে আমরা অনুসরণ করে শিক্ষা, চিকিৎসা, কৃষি, তথ্যপ্রযুক্তি, জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ প্রভৃতি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করেছি। সেভাবে চাকরিতে প্রবেশের ক্ষেত্রেও উন্নত বিশ্বকে অনুসরণ করে দক্ষ জনশক্তিকে কাজে লাগিয়ে আমরা এগিয়ে যেতে পারি।

আন্দোলনকারীরা বলেন, একজন মানুষের বয়সসীমা তার যোগ্যতার মাপকাঠি হতে পারে না। যোগ্যতা নিরূপণের জন্য পরীক্ষা আছে। তাই চাকরিতে নিয়োগ হওয়া উচিত যোগ্যতার ভিত্তিতে, বয়সের ভিত্তিতে নয়। বয়সের সীমাবদ্ধতা একজন নাগরিকের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ ছাড়া আর কিছুই নয়।