রাত ১২:৪৮ বুধবার ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

স্থানীয় গাইড পাওয়া মানে ভ্রমণের কষ্ট আশি ভাগ কমে যাওয়া।

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 5, 2018 , 10:34 am
ক্যাটাগরি : ফিচার
পোস্টটি শেয়ার করুন

নতুন জায়গায় যাচ্ছেন । কোথায় ঘুরবেন , কী খাবেন তা নিয়ে পড়েছেন বিরাট অনিশ্চয়তায়! সবজান্তা গুগল ঘেঁটে সুন্দর জায়গা আর হোটেল পাওয়া গেলেও ভ্রমণের স্থানটি আপনার জন্যে কতটা উপযুক্ত সেটি জানা কিন্তু বেশ কঠিন ।

আপনার ক্ষেত্রে যদি এমন হয় তবে কয়েকটা বিষয় মাথায় রাখলেই নতুন জায়গা নিয়ে ভীতি অনেকটাই কমে যায়। আজ কথা হবে সেই সব বিষয় নিয়ে ।

স্থানীয় সুবিধা গ্রহণঃ হোটেল সুবিধা ও খাবার-দাবার স্থানীয়দের কাছ থেকে নিলে অনেক সময় তারাই ভ্রমণের বাকি পথ বাতলে দেয়। তাই দূর দেশে ভ্রমণে গেলে সেখানকার লোকাল সুবিধা নিতে চেষ্টা করবেন।

স্থানীয় গাইডঃ লোকাল মানুষদের সঙ্গে কথা বললে তারাই অনেকসময় গাইড ব্যবস্থা করে দেয়। স্থানীয় গাইড পাওয়া মানে ভ্রমণের কষ্ট আশি ভাগ কমে যাওয়া।
যেমন দেশ তেমন বেশঃ যে স্থানে যাচ্ছেন সেখানকার সংস্কৃতি সম্পর্কে জানুন। ভ্রমণে লোকাল লোকজনের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক গড়তে পারলে ভ্রমণ হয়ে ওঠে আকর্ষণীয়। লোকাল লোকজন বুঝে শুনে এমন কিছু আপনাকে দেখাবে, যার অভিজ্ঞতা আপনি ধরে রাখবেন সারাজীবন।

স্থানীয়দেরকে সম্মান দেখানঃ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে গিয়ে স্থানীয়দেরকে অনেক সময় আমরা মূল্যায়ন করি না। সম্মান দেখিয়ে কথা বলা তো দূরে থাক, অনেকসময় গলাচড়িয়ে কথা বলে ফেলি । অন্যদেশে নয়, বাংলাদেশেই এই বিষয়টি বেশি দেখা যায়। ভ্রমণ যদি প্রিয় হয়ে থাকে তবে এই বিষয়টিকে আপনার গুরুত্ব দিতে হবে। ভুলে যাবেন না, ওই স্থানে আপনি অতিথি।

স্থানীয় তৈজস কিনুনঃ যেখানেই যাবেন সেখান থেকে স্মৃতি হিসেবে হলেও কিছু কিনে আনবেন। বেশির ভাগ দর্শনীয় স্থানে ছোট ছোট দোকানগুলোই সেখানকার মানুষের আয়ের উৎস হয়।

পানি ব্যবহারে সচেতনতাঃ সমুদ্রে যান অথবা পাহাড়ে দুই জায়গাতেই পানির ব্যবহার করা উচিৎ দেখে শুনে। স্থানীয় হোটেলে পানির বিল আপনাকে দিতে হচ্ছে না বলে যে আপনি অপচয় করবেন সেটি ঠিক নয়। সেখানে পানির স্বল্পতা আছে কি না সেটাও আপনার দেখা উচিৎ।

পরিবেশ রক্ষা করুনঃ প্রকৃতি দেখতে গিয়ে তার সৌন্দর্য নষ্ট করা কি ঠিক? প্লাস্টিক প্যাকেট, পলিথিন, সিগারেটের উচ্ছিষ্ট জমা করে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলুন। পরিবেশ বাঁচান।

স্থানীয় ভাষাঃ একেবারে অজানা জায়গায় যাওয়ার পরিকল্পনা থাকলে সেখানকার টুকটাক ভাষা জেনে রাখুন। দূর দেশে কখন কি প্রয়োজনে লেগে যায়, বলা যায় না।

হালকা বহনযোগ্য ব্যাগঃ যথাসম্ভব কম জামাকাপড় নিয়ে ভ্রমণ করবেন। কাঁধের ব্যাগ যেন থাকে একদম হালকা।

অনুমতি নিয়ে ছবি তুলুনঃ হাতে ক্যামেরা, যা সামনে পড়ছে তাকেই ক্যামেরা বন্দি করছেন। স্থানীয় লোকজনকেও বাদ রাখছেন না। আপনার এমন ব্যবহার শুধু আপনার নয় পরবর্তী ভ্রমণকারীর জন্যেও ক্ষতির কারণ হতে পারে। তাই ছবি তোলার আগে ভাবুন এবং অনুমতি নিয়ে ছবি তোলার চেষ্টা করুন।