রাত ২:০১ বুধবার ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

সাত দিনে যেভাবে ৪-৫ কেজি ওজন কমাবেন

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 3, 2018 , 4:04 am
ক্যাটাগরি : নির্বাচিত,স্বাস্থ্য
পোস্টটি শেয়ার করুন

মুটিয়ে যাওয়া নিয়ে ছেলে-মেয়ে উভয়ের চিন্তার শেষ নেই। নিজেকে আকর্ষণীয় রাখতে কে না চায়। ছেলে-মেয়ে উভয়ের সৌন্দর্যের পথে বড় বাঁধা শরীরে ওজন বেড়ে যাওয়া। তবে ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের এ বিষয় নিয়ে চিন্তা একটু বেশি। বিশেষজ্ঞরা সব সময় আস্তে আস্তে ওজন কমানোকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। এরফলে শরীরের উপর কোনো প্রভাব পড় না। বরং শরীরসহ ত্বকের উজ্জ্বলতা বহুগুণ বেড়ে যায়। তবে যদি খুব প্রয়োজন হয় ৭ দিনে ৪-৫ কেজি ওজন কমানো সম্ভব। জেনে নিন কিভাবে কমাবেন ৭ দিনে ওজন।

প্রথম

দিন: আপনার ডায়েট প্ল্যানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিনটি হল প্রথম দিন। এই দিনটিকে ফলের দিনও বলতে পারেন। সারাদিন যত খুশি তত ফল খান। তবে একটি ফল বাদে, আর সেটি হল কলা। কলা বাদে যে কোনো ফল যেকোনো পরিমাণে খেতে পারেন। ফল ছাড়া আর অন্য কোনো কিছু খাওয়া যাবে না। অব্যশ সারাদিনে ৮ থেকে ১২ গ্লাস পানি পান করতে হবে। মনে রাখবেন পেট কখনও খালি রাখবেন না। যখনই ক্ষুধা লাগবে তখনই ফল খাবেন। যতই ক্ষুধা লাগুক ফল ছাড়া অন্য কিছু খাওয়া যাবে না।

দ্বিতীয় দিন: প্রথম ফলের দিনের পর দ্বিতীয় দিন হবে সবজির দিন। দ্বিতীয় দিন শুধু শাক সবজি খেতে হবে। সবজিগুলো সিদ্ধ করে খাওয়া ভাল। তবে আপনি চাইলে অলিভ অয়েলে হালকা ভেজে নিতে পারেন। সবজিতে তেল ব্যবহার করলে ওজন কমানোর উদ্দেশ্যটাই বিফলে চলে যায়। তাই তেলকে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। যে কোনো সবজি আপনি খেতে পারেন। আপনার পছন্দের আলুও খেতে পারেন। সকাল বেলায় সেদ্ধ আলু খেলে আলুতে যে পরিমাণ কার্বোহাইড্রেট রয়েছে তা সারাদিনের বিভিন্ন কাজে বার্ন হয়ে যাবে এবং ফ্যাটও জমবে না। এ দিন পানি জাতীয় খাবার বেশি খাওয়া হয় বলে ডাইজেস্টিভ সিস্টেম পরিষ্কার হয়ে যায়।

তৃতীয় দিন: তৃতীয় দিন ফল ও সবজি একসাথে খাওয়ার দিন। এই দিন আপনি সারাদিন পেট ভরে ইচ্ছামত ফল ও সবজি খেতে পারবেন। তবে এই দিন ফলের তালিকা থেকে কলা আর সবজি থেকে আলু বাদ দিতে হবে। যেকোনো সময় খিদে লাগলেই ফল বা সবজি খেয়ে নিন, আর সারাদিনে ৮-১২ গ্লাস পানি অবশ্যই পান করবেন।

চতুর্থ দিন: এই দিনটি কিছুটা কষ্ট করতে হবে। এই দিনে শুধু দুধ আর কলা খেয়ে থাকতে হবে। কলা এবং দুধ ছাড়া আর কোন কিছু খাওয়া যাবে না। কলা ও দুধের সাথে ৮ থেকে ১২ গ্লাস পানি পান করতে হবে। অনেকেই মনে করেন যে দুধ ও কলা খেয়ে থাকাটা সম্ভব নয়। কিন্তু এটি ভুল ধারণা। দিনের শেষে আপনি নিজেই লক্ষ্য করবেন যে এই খাবারেই বেশ কেটে গেছে সারাদিন। তবে তার জন্যে এই সীমিত কলা এবং দুধ ঠিকমতো ভাগ করে নিতে হবে যে দিনের কোন সময়ে কতোটুকু করে খাবেন। নিয়ম অনুযায়ী দুধ এবং কলা ভাগ করে খেলে সারাদিনে একদমই ক্ষুধা অনুভব হবে না। আপনি চাইলে সকালের নাস্তায় ১ টি কলা ও ১ কাপ দুধ খেতে পারেন। আবার রাতের খাবারে ২ টি কলা ও ১ কাপ গ্লাস দুধ খেতে পারেন। সারা দিনে মোট ৩ গ্লাস দুধ ও ৪ টা কলা খেতে হবে। এবং অব্যশই কলা, দুধের পাশাপাশি প্রচুর পানি পান করতে হবে।

পঞ্চম দিন: এই দিনটিতে প্রথমবারের মত ভাত খেতে পারবেন। কিন্তু শুধু ভাত। আর তার পরিমাণ এক কাপ। চাইলে এক টুকরো মাছও খেতে পারেন। আর তার সাথে ৫/৭ টি বড় সাইজের টমেটো খেতে হবে। তবে এই দিনে শরীরের ইউরিক এসিডের পরিমাণ বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে বলে কমপক্ষে ১২ থেকে ১৫ গ্লাস পানি পান করতে হবে।

ষষ্ঠ দিন: ডায়েটের ষষ্ঠ দিনে আপনি এক কাপ ভাত খেতে পারেন। আর সারাদিনে যত খুশি তত সবজি খেতে পারবেন, তবে তেল দিয়ে রান্না করবেন না। সেদ্ধ সবজি খেতে হবে। সাথে ৪-৫ টুকরো মাংস খেতে পারেন। তবে এর বেশি না। আর সেটা মুরগির মাংস হলে ভাল হয়। এবং দিনে অবশ্যই ৮-১২ গ্লাস পানি পান করতে ভুলবেন না। এই দিনে আপনার হজমশক্তি অনেকটা উন্নত হবে।

সপ্তম দিন: GM ডায়েটের সপ্তম দিনে আপনি এক কাপ ভাত এবং তার সাথে সবজি খেতে পারবেন। তবে এই দিনে আপনি নিজের পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো ফলের জুসও খেতে পারবেন। এই নিয়ম অনুযায়ী ডায়েট করলে আপনি ৭ দিনের মধ্যে ৪ থেকে ৫ কেজি ওজন কমাতে সক্ষম হবেন। আর ফলমূল, সবজি খাওয়ার ফলে আপনার চেহারায় উজ্জ্বলতা বেড়ে যাবে বহুগুণ। তবে হ্যাঁ খুব প্রয়োজন না হলে এই ডায়েট করতে যাবেন না। ওজন আস্তে আস্তে কমানো উচিত। এতে শরীরের কোন ক্ষতি হয় না।