রাত ২:৩৪ বুধবার ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কুমিল্লা দেবিদ্বারে ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ। | কুমিল্লা সদরে ডিবি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র ও ৫ শত পিছ ইয়াবাসহ এক এক যুবক। | সিলেট চেম্বারের পরিচালনা পরিষদের ২০১৯-২০২১ সাল মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত | কুমিল্লা সদর দক্ষিণে যাত্রীবাহি বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। | মাধবপুরে দুই কেজি গাঁজা সহ ২ মাদক পাচারকারী আটক | ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাইলেন ক্রিকেটার রুবেল | পুত্র সন্তানের বাবা হলেন রুবেল, মা-ছেলে দুজনেই সুস্থ আছেন | মাদক চোরাকারবারীদের ফাঁদে পরে, বিলিনের পথে মাধবপুরের চা শিল্প! | কুমিল্লা সদরে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই ষ্কুল শিক্ষার্থী নিহত। আহত-৩ | কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৫ হাজার পিছ ইয়াবাসহ সাংবাদিক শামীম আটক। |

অন্যরকম মুশফিক! বৃদ্ধাশ্রমে শুনলেন কষ্টের গল্প আর গান

নিউজ ডেস্ক | জাগো প্রতিদিন .কম
আপডেট : May 1, 2018 , 11:32 am
ক্যাটাগরি : নির্বাচিত,মুক্তমত
পোস্টটি শেয়ার করুন

সুযোগ পেলেই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান মুশফিকুর রহিম। সহযোগিতা করার পাশাপাশি জানান সহমর্মিতা। জাতীয় দলের এ ক্রিকেটার এবার গেলেন বৃদ্ধাশ্রমে। গোড়ালির ইনজুরি কাটিয়ে সবেই মাঠে ফেরা মুশফিক মঙ্গলবার মিরপুরে হালকা রানিং করেই চলে যান কল্যাণপুরের পাইকপাড়ায় অবস্থিত ‘চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এইজ কেয়ারে’। সেখানে গিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন এক বৃদ্ধার গান শুনলেন। জড়িয়ে ধরে ছবি তুললেন। অন্যদের খোঁজ-খবর নিলেন। শুনলেন তাদের অসহায়ত্বের গল্প।

বৃদ্ধাশ্রমে

ছোট ছোট চারটি কক্ষে পুরুষ ও মহিলা মিলে ২২ জন থাকেন। যিনি মুশফিককে গান শুনিয়েছেন তার নাম কেউ জানে না! খুব বেশি লাফালাফি করেন বলে ‘লাফা’ নামেই ডাকেন সবাই। মানসিক হাসপাতাল থেকে তিন বছর আগে দুজন চিকিৎসক এখানে তাকে দিয়ে যান। ক্রিকেটার মুশফিককে বৃদ্ধাশ্রমের কেউ না চিনলেও কেউ একজন দেখতে এসেছেন সেটি ভেবেই আপ্লুত সবাই। আপ্লুত মুশফিকও, ‘তারা যে জায়গায় আছেন বা যে সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে এসেছেন, তাতে আমাদের চেনারও কথা নয়। কেউ নো কেউ তো এসেছিল, এটাই অনেক বড় ব্যাপার। তাদের দেখে বুঝতে পারছি আমরা কত ভাল আছি। আরও বড় বড় কাজের সাথে যেন জড়িত থাকতে পারি, সেটিই চাই। ’

মুশফিক নিজে দেখতে এসেছেন। আহ্বান জানালেন সক্ষম ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার, ‘সাহায্য করার মতো অবস্থায় অনেকেই আছেন। আমি চাইব তারাও এগিয়ে আসুক। বৃদ্ধ যারা আছেন, তারা অনেক কষ্টে আছেন। তারা যদি শেষ সময়টা একটু ভাল কাটিয়ে যেতে পারেন তাহলে এরচেয়ে ভাল কিছু আর হয় না। চেষ্টা থাকবে তাদের সঙ্গে সময় কাটানোর এবং সাহায্য করা। ’